কালিয়াকৈরে গ্রেফতারের পর 'কথিত বন্দুকযুদ্ধে' সন্ত্রাসী নিহত

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ০২ জুলাই ২০১৯, ১৬:৩৯

গাজীপুর মহানগরের কোনাবাড়ি এলাকা থেকে লিয়ন সিদ্দিকী নামে এক সন্ত্রাসীকে গ্রেফতারের পর তাকে নিয়ে মাদক উদ্ধারে গেলে পুলিশের সঙ্গে 'কথিত বন্দুকযুদ্ধে' লিয়ন নিহত হয়েছে। ওই সময় ঘটনাস্থল থেকে তিন রাউন্ড গুলি ও একটি পিস্তল উদ্ধার করা হয়।

গতকাল সোমবার রাতে গাজীপুরের কালিয়াকৈর উপজেলার সিনাবহ এলাকায় এ ঘটনা ঘটে। সে কালিয়াকৈর উপজেলার সফিপুর এলাকার শফিউদ্দিন সিদ্দিকীর ছেলে। তার বিরুদ্ধে খুন, সন্ত্রাস, মাদক ও চাঁদাবাজিসহ ১৭টি মামলা রয়েছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

পুলিশ সূত্রে জানা গেছে জয়দেবপুর থানার একটি হত্যা ও মাদক মামলায় গতকাল সোমবার রাতে লিয়নকে গাজীপুর সিটি করপোরেশনের কোনাবাড়ি এলাকা থেকে গ্রেফতার করা হয়। পরে তার দেওয়া তথ্য মতে রাতে এসআই আতিকুর রহমান রাসেলের নেতৃত্ব কালিয়াকৈর থানা পুলিশের একটি দল লিয়নকে নিয়ে অস্ত্র এবং মাদক উদ্ধারে কালিয়াকৈরের বিভিন্ন এলাকায় অভিযান চালায়।
এক পর্যায়ে তারা সিনাবহ এলাকায় পৌঁছালে পূর্ব থেকে উৎপেতে থাকা লিয়ন বাহিনীর অন্য সদস্যরা পুলিশকে লক্ষ্য করে গুলি চালায়। আত্মরক্ষার্থে পুলিশও পাল্টা গুলি চালালে পালিয়ে যাওয়ার সময় লিয়ন গুলিবিদ্ধ হয়।

এ সময় লিয়ন বাহিনী অন্য সদস্যরা পালিয়ে গেলেও সেখান থেকে একটি পিস্তল ও তিন রাউন্ড গুলি উদ্ধার করে পুলিশ। পরে আহত অবস্থায় লিয়নকে উদ্ধার করে কালিয়াকৈর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নেওয়া হলে কর্তব্যরত ডাক্তার তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

কালিয়াকৈর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের কর্তব্যরত ডাক্তার সবিদা শাহা জানান রাত ৪টার দিকে মৃত অবস্থায় পুলিশ তাকে হাসপাতালে নিয়ে আসে। তার শরীরের বিভিন্ন স্থান রক্তাক্ত ছিল। পুলিশ জানিয়েছে সে বন্দুকযুদ্ধে গুলিবিদ্ধ হয়ে আহত হয়েছে।

কালিয়াকৈর থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) আলমগীর হোসেন মজুমদার সাংবাদিকদের জানান নিহত লিয়নের বিরুদ্ধে খুন, সন্ত্রাস, মাদক ও চাঁদাবাজিসহ ১৭টি মামলা রয়েছে।

এবিএন/আলমগীর হোসেন/গালিব/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ