আশাশুনিতে বাকপ্রতিবন্ধীকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে আটক ২

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১৩ জুন ২০১৯, ১১:২৮

আশাশুনিতে বাকপ্রতিবন্ধী মেয়েকে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে ২ জনকে আটক করেছে পুলিশ। 

খাজরা ইউনিয়নের চেউটিয়া গ্রামে গত ৭ জুন বেলা ১১টার দিকে এ ঘটনা ঘটে। মেয়ের মা জয়নাব সিদ্দিকী বাদী হয়ে ৩ জনকে আসামি করে থানায় ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে মামলা দায়ের করেছেন। গতকাল বুধবার ভিকটিমের ডাক্তারী পরীক্ষা সম্পন্ন করা করেছে। 

মামলা সূত্রে জানা গেছে, খাজরার চেউটিয়া গ্রামের মৃত আলহাজ নূরুল হক চৌধুরীর বাকপ্রতিবন্ধী কন্যাকে প্রতিবেশী করিম সরদারের পুত্র আলামিন হোসেন ও আনছার সরদারের পুত্র এনামুল হোসেন ফোন করে আলামিনের বাড়িতে ডেকে নিয়ে আসে। আলামিনের পিতা-মাতা বাড়িতে না থাকার সুযোগে তারা বাকপ্রতিবন্ধীর শরীরের বিভিন্ন স্পর্শকাতর স্থানে হাত দিয়ে ধর্ষণের চেষ্টা করে। তার ডাক চিৎকারে বাড়ির লোকজন ছুটে এসে তাকে উদ্ধার করে। মেয়ের মা জয়নাব সিদ্দিকী গত মঙ্গলবার করিম সরকারের পুত্র আলামিন, আনছার সরদারের পুত্র এনামুল ও মৃত হামেজ সরদারের পুত্র আমিরুল সরদারকে আসামি করে মামলা দায়ের করেন। পুলিশ আলামিন ও এনামুলকে আটক করেছেন। 

এ ব্যাপারে আলামিনের বৃদ্ধা মা মাহফুজা খাতুন জানান গত ৭ জুন তারা বাড়িতে ছিলেননা। বাকপ্রতিবন্ধী মেয়ে প্রতিবেশী হওয়ায় ছোট বেলা থেকেই তাদের বাড়িতে যাতায়াত করে। আলামিন ও এনামুলের স্ত্রীদের সঙ্গে বাকপ্রতিবন্ধী মেয়ের সম্পর্ক থাকায় তাদের বাড়িতে আসা যাওয়া রয়েছে। আলামিন বাকপ্রতিবন্ধী মেয়ের মোবাইল নিয়ে দেখাকে কেন্দ্র করে সে অসন্তুষ্ট হয়ে ডাকচিৎকার দেয়। ধর্ষণ চেষ্টার কোন ঘটনাই ঘটেনি। বাকপ্রতিবন্ধী মেয়ের মামা আনিসের সঙ্গে আমিরুলের কথা-কাটাকাটির জের ধরে দিন দুপুরে ধর্ষণ চেষ্টার অভিযোগে তাদের পরিবারকে হয়রানির জন্য মামলা দায়ের করেছে দাবি করে বিষয়টি সুষ্ঠু তদন্তপূর্বক ন্যায় বিচারের দাবি জানিয়েছেন তিনি।
 
এবিএন/জি এম মুজিবুর রহমান/গালিব/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ