পার্বতীপুরে কিশোরী ধর্ষিত, ধর্ষক গ্রেপ্তার

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১৬ মে ২০১৯, ২২:৫০

দিনাজপুরের পর্বতীপুরে বিয়ের প্রলোভন দিয়ে এক কিশোরীকে দীর্ঘদিন ধরে ধর্ষণ করেছে এক যুবক। তবে তার শেষ রক্ষা হয়নি। বাড়ী ও প্রতিবেশী লোকজন ওই যুবককে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে।  এঘটনায় গতকাল বুধবার ভিকটিমের বাবা মাহবুব আলম বাদী হয়ে পার্বতীপুর মডেল থানায় ২০০০ সালের নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনের ৯ (১) ধারায় একটি মামলা দায়ের করেন।

পুলিশ ধর্ষককে গ্রেপ্তার করে আদালতের মাধ্যমে দিনাজপুর জেল হাজতে পাঠিয়েছে। আজ বৃহস্পতিবার সকালে ভিকটিমকে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য দিনাজপুর এম আব্দুর রহিম মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠিয়েছে।

মামলার এজাহার সূত্রে জানা যায়, পার্বতীপুর উপজেলার হাবড়া ইউনিয়নের শেরপুর ভবানীপুর বাজারের আবু সায়েমের ছেলে মোস্তফা তামিম অনিক (১৯)। এইচএসসি পাশ এই যুবক গত বুধবার গভীর রাতে পশ্চিম শেরপুর গ্রামের মাহবুব আলমের বাড়ীর প্রাচীর টপকিয়ে ভেতরে প্রবেশ করে তার কিশোরী কন্যাকে (১৭) ধর্ষণ করে। এসময় বাড়ী ও প্রতিবেশী লোকজন আপত্তিকর অবস্থায় তাদেরকে আটক করে। শেরপুর ভবানীপুর উচ্চ বিদ্যালয় থেকে কিশোরী এবার এসএসসি পাশ করেছে।   

মামলার তদন্ত কর্মকর্তা ও পার্বতীপুর মডেল থানার পুলিশের উপ-পরিদর্শক আতিকুজামান জানান, এঘটনায় থানায় ধর্ষণ মামলা হয়েছে। ধর্ষককে গ্রেপ্তার করে জেল হাজতে পাঠানো হয়। ভিকটিমকে বৃহস্পতিবার সকালে ডাক্তারী পরীক্ষার জন্য মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। এদিকে, সকাল সাড়ে ১১টায় উপজেলা সমাজ সেবা কর্মকর্তা তাপস রায় ওই কিশোরীর ঘটনার বিষয়ে জবানবন্দি লিপিবদ্ধ করেন। কিশোরী তার জবানবন্দিতে গ্রেপ্তার যুবক বিয়ের প্রলোভনে দীর্ঘদিন ধরে ধর্ষণ করে আসছে বলে উল্লেখ করে।

এবিএন/এমএ জলিল সরকার/জসিম/রাজ্জাক

এই বিভাগের আরো সংবাদ
well-food