আগুন দেয়া কৃষকের ধান কাটলো শিক্ষার্থীরা

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১৬ মে ২০১৯, ০০:৩১

টাঙ্গাই‌লের কা‌লিহাতী‌তে ধা‌নে আগুন দেয়া সেই আবদুল মা‌লেক সিকদা‌রের জ‌মির ধান কে‌টে দিল বি‌ভিন্ন বিশ্ববিদ্যাল‌য়ের শিক্ষার্থীরা।

বুধবার (১৫ মে) দুপুরে উপ‌জেলার পাইকড়া ইউনিয়নের বান‌কিনা গ্রা‌মে গি‌য়ে মা‌লে‌কের জ‌মির ধান কাটার কাজে অংশ নেন এ শিক্ষার্থীরা। এ ধান কাটায় অংশগ্রহণ করেন ১৭জন শিক্ষার্থী।

সম্প্রতি শ্র‌মিক সংকট ও বে‌শি মজুরীর আর ধানের মূল্য কম থাকায় ক্ষুব্ধ উপ‌জেলার বান‌কিনা গ্রা‌মের কৃষক মা‌লেক ধান ক্ষে‌তে আগুন দেন। ক্ষেতে এ আগু‌ন দেয়ার সংবাদটি বি‌ভিন্ন অনলাইন, ই‌লেক্ট্রনিক্স, প্রিন্ট মিডিয়াসহ সামা‌জিক যোগা‌যোগ মাধ্য‌মে প্রচার হয়। এর‌ই প্রে‌ক্ষি‌তে সেই ক্ষুব্ধ কৃষক মা‌লে‌কের জ‌মির ধান কে‌টে দেয়ার উদ্যোগ নেন বি‌ভিন্ন শিক্ষা প্র‌তিষ্ঠা‌নের এই শিক্ষার্থীরা।

ধান কাট‌তে আসা শিক্ষার্থী কৃষ্ণ জানায়, টাঙ্গাই‌লে শ্র‌মি‌কের সংক‌টের পাশাপা‌শি বে‌শি মজুরী হওয়ায় কৃষকরা তা‌দের ক্ষে‌তের ধান কাট‌তে পার‌ছে না। কৃষ‌কের এই নির্মম দি‌নে তা‌কে সহ‌যো‌গিতা কর‌তে আমরা সবাই তার ক্ষে‌তের ধান কাটায় সহযোগিতা করছি। বাজা‌রে শ্র‌মিকের মজুরী অ‌নেক বে‌শি তাই আমরা স্বেচ্ছায় তার ক্ষেতের ধান কাট‌তে এসেছি।

শিক্ষার্থীদের উদ্যোগে অভিভুত কৃষক মা‌লেক সিকদার ব‌লেন, ক্ষো‌ভে ধান ক্ষে‌তে আগুন দি‌য়ে‌ছিলাম অধিক শ্রমিক মজুরী, শ্র‌মিক সংকট ও ধা‌নের দাম কম থাকায়। তবে এ সংবাদে আজ দুপুরে বি‌ভিন্ন শিক্ষা প্র‌তিষ্ঠা‌নের শিক্ষার্থীরা আমার ক্ষেতের ধান কেটে দেয়া উদ্যোগ গ্রহণ ও এগিয়ে আসায় আমি অভিভুত হয়েছি। এই ধান কাটায় তার শ্রমিক মজুরী বাবদ ৪২০০টাকা, তিন বেলা খাওয়াসহ থাকার ব্যবস্থা করা থেকে মুক্ত হলেন তিনি।

এ সময় ওই শিক্ষার্থীরা তার ২৮ শতাংশ জমির ধান কেটেছে বলেও জানান তিনি।

এবিএন/শংকর রায়/জসিম/পিংকি

এই বিভাগের আরো সংবাদ