ময়মনসিংহে যুবলীগ নেতা হত্যায় ১২ জনের নামে মামলা

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১৫ মে ২০১৯, ১৭:১৮

ময়মনসিংহ জেলা যুবলীগ নেতা রেজাউল করিম রাসেল ওরফে রাসেল হত্যার ঘটনায় মহানগর ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আব্দুল্লাহ আল মামুন আরিফকে প্রধান আসামি করে ১২ জনের নামে মামলা করা হয়েছে।

গত সোমবার রাতে নগরীর মৃত্যুঞ্জয় স্কুলরোড মহল্লায় ডিফেন্স পার্টির কার্যালয়ে ময়মনসিংহ জেলা যুবলীগ নেতা রাসেলকে দুর্বৃত্তরা কুপিয়ে হত্যা করে বলে জানায় পুলিশ। প্রাথমিকভাবে ধারণা থেকে পুলিশ জানায়, অভ্যন্তরীণ কোন্দলের জেরে এ হত্যাকাণ্ড ঘটতে পারে। রাসেল শহরতলীর শম্ভুগঞ্জ হরিপুর এলাকার জালাল উদ্দিন ওরফে জালাল ডিলারের ছেলে। তিনি জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সহ-সভাপতি।

নিহতের বড় ভাই আনোয়ার হোসেন লিমন জানান, 'এক বছর আগে এই রোজার মাসেই জেলা ছাত্রলীগের সাবেক সভাপতি আবদুল্লাহ আল মামুন আরিফের বাহিনী রাসেলের একটি আঙ্গুল কেটে নিয়ে যায়। তখন থেকেই রাসেলকে হত্যার হুমকি-ধমকি দিয়ে আসছে ওই বাহিনী।'

তিনি আরও জানান, 'এর আগেও দুই-তিনবার তার ওপর হামলা হয়। সম্প্রতি আমলাপাড়ার বাসায় হামলা ও ভাংচুর করে আরিফ বাহিনী। আমি নিশ্চিত, আরিফ ও তার বাহিনীর সদস্যরাই আমার ভাইকে হত্যা করেছে।'

ঘটনাস্থল পরিদর্শন করে সদর সার্কেলের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার আল আমিন জানান, রাসেলকে রাত আনুমানিক ২টার দিকে ছুরিকাঘাত করে রক্তাক্ত অবস্থায় সড়কে ফেলে রাখা হয়। খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে পুলিশ মরদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য হাসপাতাল মর্গে পাঠায়।

তিনি আরও জানান, তার ব্যবহৃত মোবাইল ফোন পাওয়া গেছে। খুনিদের গ্রেফতারে কোতোয়ালি পুলিশ ও ডিবি পুলিশ যৌথভাবে কাজ করছে।

এদিকে কোতোয়ালি থানার ওসি মাহমুদুল ইসলাম জানান, 'অভ্যন্তরীণ কোন্দলের জেরে এ হত্যাকাণ্ডের ঘটনা ঘটে থাকতে পারে। হত্যাকারী যে বা যারাই হোক তাদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা হবে।'
 

এবিএন/মঈন উদ্দিন রায়হান/জসিম/তোহা

এই বিভাগের আরো সংবাদ