বান্দরবানের রোয়াংছড়িতে নদী পূজা

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১৪ মে ২০১৯, ২০:৪০

বান্দরবানের রোয়াংছড়িতে অশুভ শক্তিকে প্রতিরোধ করার বিশ্বাস নিয়ে মারমা সম্প্রদায়রা নদী পূজা করেছে।  আজ মঙ্গলবার মঙ্গলবার সকালে রোয়াংছড়ি উপজেলার ৩৩৮নং মৌজার হেডম্যান চসিং প্রু মারমার নেতৃত্বে পুজারীরা নদী পূজায় অংশগ্রহণ করেন। পুজার শুরুতে উজানী পাড়া দেবীর সীমা ঘর (রোওয়া সাঙমা চাঙ) এর পূজা দেয়া হয়। পরে এক এক করে মাহাঃগী সাঙ মাহ্ (১নং রোয়াংছড়ি ইউপি পেছনের বড় গাছ), রিগ্রাইক্ষ্যং আঙু (রিগ্রইক্ষ্যং মুখ), শেষে রিগ্রইক্ষ্যং ছোইনাহ্ এ পূজা দিয়ে নদী পূজা সম্পন্ন করা হয়।

পাড়াবাসীদের সূত্রে জানা গেছে, সবুজের ঘেরা পাহাড় পরিবেশে অশুভ শক্তি ভূত প্রেত আত্মার প্রভাব বিস্তার করতো ও পাড়াবাসীরা বিভিন্ন সময় নানান অসুবিধার সম্মুখীন হতে হতো। তাই অশুভ শক্তির হাত থেকে রেহাই পেতে সৎ আত্মাদের সহায়তা পাওয়ার জন্য এই নদী পূজা (ক্ষ্যং ফুহ) পালন করে আসছে তারা।

বান্দরবান জেলায় রাজার শাসন আমল প্রয় শত বছর আগে থেকেই নদী পূজা হয়ে আসছে। তারই ধারাবাহিকতা বজায় রেখে এই নদী পূজা শ্রদ্ধের সাথে পালন করছে করছে পাড়া বাসীরা। পুজাতে ভাত, কলা, বিস্কুট, নারিকেল, গুড়, মুড়ি ও ফুল এই সাত প্রকার বিভিন্ন ধরনের মিষ্টি দিয়ে নদী পূজা করে থাকে। মারমা সম্প্রদায়ের প্রবিণদের মতে প্রতি বছর মারমাদের নতুন বছরে পর্দাপণ হওয়ার পর জারুল ও কৃষ্ণ চূড়া ফুল ফুটলেই এই পূজাটি অনুষ্ঠিত হয়ে থাকে।

এবিএন/মোহাম্মদ আব্দুর রহিম/জসিম/রাজ্জাক

এই বিভাগের আরো সংবাদ
well-food