দুর্গাপুরে শেষ হলো হাজংদের দেউলি উৎসব

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ০৬ মে ২০১৯, ১৯:২৩

নেত্রকোনার দুর্গাপুরের বিরিশিরি ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর কালচারাল একাডেমীর আয়োজনে একাডেমি মিলনায়তনে সোমবার দু’দিনব্যাপী হাজং সমাবেশ, মেলা ও সাংস্কৃতিক উৎসব ”দেউলি” শেষ হয়েছে।

সমাপনী দিনে বিশিষ্ট গীতিকার ও কবি সুজন হাজং এর সঞ্চালনায় ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর কালচারাল একাডেমীর পরিচালক শরদিন্দু সরকার এর সভাপতিত্বে প্রধান অতিথি হিসেবে আলোচনা করেন, বিশ্ব বাংলা কবিতা পরিষদ এর সভাপতি ও সাবেক সংসদ সদস্য কাব্যশ্রী কাজী রোজী। প্রধান বক্তা হিসেবে আলোচনা করেন বিশিষ্ট শিশু সাহিত্যিক, জাতীয় কবিতা পরিষদের সভাপতি মন্ডলীর সদস্য কবি আসলাম সানী।

 অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন, উপজেলা পরিষদ চেয়ারম্যান জান্নাতুল ফেরদৌস ঝুমা তালুকদার, বিশিষ্ট গবেষক ও কবি ড. মুজিদ মাহমুদ, বিশিষ্ট কবি ও চলচিত্র নির্মাতা ড. মাসুদ পথিক, বাঙ্গালী কৃষ্টি ও সংস্কৃতি ফোরামের সভাপতি কবি লুৎফর চৌধুরী, কবি ও কথা শিল্পী সালাহ্ উদ্দিন মাহমুদ, বাংলাদেশ হাজং জাতীয় সংগঠনের সহ-সভাপতি স্বপ্না হাজং, সাধারন সম্পাদক সাংবাদিক পল্টন হাজং প্রমুখ। আলোচনা শেষে হাজং সম্প্রদায়ের কৃষ্টি ও সংস্কৃতি নিয়ে মহিষাসুর বধ পালা কীর্তন পরিবেশন করা হয়।


বক্তারা বলেন, ক্ষুদ্র নৃ-গোষ্ঠীর বিভিন্ন সমস্যা ও তাদের জীবনমান উন্নয়ন, ভাষা ও সংস্কৃতি রক্ষায় সরকার বদ্ধ পরিকর। আদিবাসীদের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য বিকশিত করার জন্য দেশের বিভিন্ন অঞ্চলে কালচারাল একাডেমি প্রতিষ্ঠা করা হয়েছে। উপস্থিত সকলকে সরকারের পাশাপাশি নেত্রকোনা অঞ্চলের আদিবাসীদের সাংস্কৃতিক ঐতিহ্য রক্ষায় সকলকে এগিয়ে আসার আহবান জানান। আলোচনা শেষে বিভিন্ন এলাকা থেকে আগত হাজং সাংস্কৃতিক দল তাদের কৃষ্টি তুলে ধরে সংগীত ও নৃত্য পরিবেশনের পাশাপাশি ঐতিহাসিক মহিষা সুরবধ পালা পরিবেশন করেন।


 এবিএন/তোবারক হোসেন খোকন/জসিম/তোহা

এই বিভাগের আরো সংবাদ
well-food