মাদারীপুরে ইউএনও’র ফোন ক্লোন করে চাঁদা দাবির অভিযোগ

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২২ এপ্রিল ২০১৯, ২০:৩৯

মাদারীপুর সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সাইফুদ্দিন গিয়াসের সরকারি মোবাইলফোন ক্লোন করে মাদ্রাসার সুপার, মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক-শিক্ষিকার কাছে ল্যাপটপ দেয়ার কথা বলে ও অন্যান্য কাজের কথা বলে চাঁদা দাবির অভিযোগ উঠেছে।

এ ঘটনার পর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাইফুদ্দিন গিয়াস তাৎক্ষনিক উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার, মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসারসহ উপজেলার কর্মকর্তাদের সতর্ক করে এবং তার ফেসবুক পেজেসহ সকল শ্রেণি-পেশার মানুষকে সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়েছেন।

উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা সাইফুদ্দিন গিয়াস ব্যক্তিগত ফেসবুক অ্যাকাউন্টে তিনি লিখিছেন, ‘আমার  অফিসিয়াল ০১৭৩৩৩৫১৪২১ নম্বরটি ক্লোন করে একটি প্রতারকচক্র মাদ্রাসার সুপার, মাধ্যমিক বিদ্যালয় ও সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক-শিক্ষিকার কাছে টাকা দাবি করেছে। বিষয়টি নিয়ে সবাইকে সতর্ক থাকার জন্য অনুরোধ করা হলো।

আজ সোমবার দুপুরের পরে  মাদারীপুর সদর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. সাইফুদ্দিন গিয়াস বলেন, রোববার সদর উপজেলার চরগোবিন্দপুর সিনিয়র মাদ্রাসার সুপারের কাছে আমার মোবাইল নম্বর ক্লোন করে সাত হাজার টাকা দাবি করে। এছাড়াও দক্ষিণ বিরঙ্গন সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষকাসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের প্রধানের কাছে ল্যাপটপ দেয়ার কথা বলে ও অন্যান্য কাজের কথা বলে বিকাশের টাকা দেয়ার জন্য বলে। ি

বষয়টি আমি জানতে পেরে তাৎক্ষনিক উপজেলা প্রাথমিক শিক্ষা অফিসার, মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসারসহ উপজেলার কর্মকর্তাদের সতর্ক করে দিয়েছি। বিষয়টি খতিয়ে দেখার জন্য সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাকে বিকাশের নাম্বারটি দিয়েছি। প্রতারক চক্রকে ধরার জন্য বিভিন্নভাবে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছি। ফেসবুক পেজে সকল শ্রেণি-পেশার মানুষকে সতর্ক থাকার আহ্বান জানিয়েছেন। বিগত পাঁচমাস পূর্বেও একবার আমার অফিসিয়াল নাম্বার ক্লোন করা হয়েছিল।
 

এবিএন/সাব্বির হোসাইন আজিজ/জসিম/তোহা

এই বিভাগের আরো সংবাদ
well-food