প্রতারণার মাধ্যমে ৪ বছর ধরে ধর্ষণ

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১৭ এপ্রিল ২০১৯, ১৯:১২

মানিকগঞ্জে এক নারীকে প্রতারণার মাধ্যমে গেল চার বছর ধরে ধর্ষণ করছে এক ব্যক্তি। অভিযুক্ত ব্যক্তির নাম মো. আলী উজ্জ্বল (৪০)। সে মানিকগঞ্জের ঘিওর উপজেলার হেলাচিয়া গ্রামের দরবেশ বেপারীর ছেলে। সে বিবাহিত। এলাকায় তার সমিল, রাইস মিল ও ফার্নিচারের দোকান রয়েছে।

ওই নারীর অভিযোগ তার কথা মতো না চললে তাকে অমানবিক শারীরিক নির্যাতন সহ্য করতে হয়। ওই ব্যক্তির কথায় সে বিভিন্ন সময়ে ভিন্ন ভিন্ন মানুষের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক করতেও বাধ্য হয়েছে। শুধু তাই নয়, ওই ব্যক্তি ওই নারীকে দিয়ে বিভিন্ন এনজিও থেকে ৮ লাখ টাকা ২৫ হাজার টাকা ঋণ উঠিয়ে নিয়েছে। এখন ওই ব্যক্তির কুনজর পড়েছে ওই নারীর স্কুল পড়ুয়া মেয়ের দিকে। মেয়ের সঙ্গে শারীরিক সম্পর্ক না করতে দিলে এ বিষয়ে তার স্বামীকে জানাবে এবং তার গোপন ভিডিও ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেয়ার ভয় দেখাচ্ছে। প্রথমে মান সম্মানের ভয়ে কাউকে কিছু না বললেও, সে তার মেয়ের ইজ্জত বাঁচাতে মঙ্গলবার রাতে মানিকগঞ্জ সদর থানায় একটি মামলা দায়ের করেছেন। 

তিনি মামলায় উল্লেখ করেছেন, মঙ্গলবার দুপুরে ওই নারীকে তার মেয়েসহ মানিকগঞ্জের উত্তর সেওতা এলাকার মনিরা বেগম মনোয়ারার বাসার চিলাকোঠার কক্ষে যেতে বলে। না গেলে কিস্তির  আট লাখ ২৫ হাজার টাকা ফেরত না দেয়ার হুমকি দেয়। প্রাণনাশের হুমকিসহ ইন্টারনেটে তার ভিডিও ছড়িয়ে দেয়ার হুমকি দেয় সে।

উপায়ন্তর না দেখে ওই নারী তার মেয়েকে নিয়ে মঙ্গলবার দুপুরে ওই বাড়ির চিলে কুঠার কক্ষে যায়। প্রথমে ওই ব্যক্তি ওই নারীকে ধর্ষণ করে এবং পড়ে অন্য কক্ষ থেকে তার মেয়েকে এনে ধর্ষণ করতে উদ্যত হয়। কিন্তু মাঝে মধ্যেই অপরিচিত পুরুষরা নারী নিয়ে ওই বাড়িতে আসে এমন সন্দেহের ভিত্তিতে কয়েকজন স্থানীয় লোক ঘটনাস্থলে উপস্থিত হয়। তাদের উপস্থিতি টের পেয়ে ওই ব্যক্তি তার ব্যবহৃত স্মার্ট মোবাইল ফোনটি ফেলেই পালিয়ে যায়। ওই নারীকে সেখানে পেয়ে স্থানীয়রা জিজ্ঞেস করাতেই এই লোমহর্ষক ঘটনা জানা যায়।

মানিকগঞ্জ সদর থানার অফিসার-ইন-চার্জ রকিবুজ্জামান বলেন, এ ব্যাপারে মো. আলী উজ্জ্বল এবং তার এই অপকর্মে সহায়তা করার জন্য ওই বাড়ির মালিক মনিরা বেগম মনোয়ারার বিরুদ্ধে মামলা হয়েছে।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা এসআই আশরাফুল ইসলাম বলেন, ভিকটিমের স্বাস্থ্য পরীক্ষার জন্য ২৫০ শয্যাবিশিষ্ট জেলা হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

ওই হাসপাতালের আবাসিক মেডিক্যাল অফিসার ডা: লুৎফর রহমান বলেন, ভিকটিমের স্বাস্থ্য পরীক্ষা সম্পন্ন হয়েছে।

এবিএন/মমিন/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ
well-food