কালিয়াকৈরে বস্তাবন্দী যুবক উদ্ধার

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১৫ এপ্রিল ২০১৯, ১১:৫৪

গাজীপুরের কালিয়াকৈরে হরিনহাটি এলাকা থেকে রহিম মন্ডল (২৭) নামের এক যুবককে বস্তাবন্দী হাত-পা বাধাঁ অবস্থায় উদ্ধার করেছে থানা পুলিশ। 

আজ সোমবার সকাল ৬টার সময় উপজেলার ৭নং ওয়ার্ডের হরিনহাটি এলাকার হাফিজুর রহমান (হাফন) এর বাসা সংলগ্ন রাস্তা থেকে মুমূর্ষ অবস্থায় তাকে উদ্ধার করা হয়।  
 
আহত যুবকের নাম রহিম মন্ডল (২৭) পিতা রাজ্জাক মন্ডল সাং শ্রীফলাকাঠি, থানা সাদুল্লাপুর, জেলা গাইবান্ধা। সে দক্ষিণ হরিনহাটি এলাকার আসাদুল্লাহ বাবুর বাসায় তার বোনের সাথে একটি টিনসেট ঘড়ে বাড়া থেকে স্থানীয় এলাকায় রিক্সা চালাত।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, সোমবার ভোর সাড়ে ৫টার দিকে হরিণহাটি এলাকার একটি রাস্তায় বস্তাবন্দী অবস্থায় এক যুবককে দেখতে পায় এলাকাবাসী। পরে স্থানীয়রা থানায় খবর দিলে ঘটনা স্থলে পুলিশ এসে বস্তাবন্দী হাতা-পা বাধাঁ গুরুতর আহত অবস্থায় ওই যুবককে উদ্ধার করে কালিয়াকৈর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে পাঠায়। 
ঘটনায় আহত রহিম জানান, গতকাল রবিবার রাত অনুমান পৌনে ১০টার দিকে সে প্রতিদিনের মত রিক্সা চালিয়ে বাড়ি ফিরছিল। 

এ সময় পথের মধ্যে মুরগি বিক্রেতা আলীর ছেলে মোঃ আরাফাত হোসেন (২৪) প্রথমে তার গতিপথ রোধ করে, পরে আলী ফকির এবং কয়েক দিন আগে জেল থেকে ছাড়া পাওয়া একাধিক মামলার আসামি মোঃ হানিফ (২৮), তুষার ওরফে ছোটন (২০), রুবেল ওরফে লম্বা রুবেল (২৭), আকাশ, সজীব ও আবিরসহ আরো অজ্ঞাত ১০ থেকে ১২ জন মিলে রাত ১০ টা থেকে সোমবার ভোর ৫টা পর্যন্ত তার হাত-পা বেধেঁ সারা রাত কোন এক জায়গায় আটক রেখে পিটিয়ে এবং দু পায়ে ধারালো অস্ত্র দিয়ে কুপিয়ে মারাত্মকভাবে ক্ষত বিক্ষত করে। তবে হাত-পা ও চোখ বেধেঁ তাকে কোথায় আটক রেখে নির্যাতন করা হয়েছে সে এ বিষয়ে কিছু জানাতে পারেনি। 

এ বিষয়ে কালিয়াকৈর থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) মোঃ নজরুল ইসলাম জানান, এলাকাবাসীর ফোন পেয়ে পুলিশ দ্রুত ঘটনা স্থলে পৌছে এবং গুরুতর আহত অবস্থায় বস্তাবন্দী হাত-পা বাঁধা ওই যুবককে উদ্ধার করে কালিয়াকৈর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে আসি। পরে তাকে সেখানে প্রাথমিক চিকিৎসা দেয়া হয়। এখানে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে উন্নত চিকিৎসার জন্য গাজীপুর শহীদ তাজ উদ্দীন আহমেদ মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। 

তিনি আরও জানান, প্রাথমিকভাবে আহতের নিকট থেকে ঘটনার কিছু তথ্য পাওয়া গেছে। সে সুস্থ্য হলে ঘটনার পূর্ণ তথ্য পাওয়া যাবে। 

এ ছাড়া ঘটনায় এখনো কোন অভিযোগ হয়নি। তবে এ ব্যাপারে তদন্ত চলছে। তদন্ত সাপেক্ষে ঘটনার সাথে জড়িতদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণ করা হবে। 

এবিএন/আলমগীর/গালিব/জসিম
 

এই বিভাগের আরো সংবাদ