সিরাজগঞ্জে বাল্যবিয়ে থেকে রক্ষা পেল দুই স্কুল ছাত্রী

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২৯ মার্চ ২০১৯, ১৮:১৮

সিরাজগঞ্জে ভ্রাম্যমাণ আদালতের পৃথক অভিযানে বাল্যবিয়ে থেকে রক্ষা পেল ২ স্কুল ছাত্রী। এ ঘটনায় বর ও কনে পক্ষের ৩ জনকে জরিমানা করেছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

 এতে এলাকায় ব্যাপক সচেতনতার সৃষ্টি হয়েছে। সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলা সহকারী কমিশনার (ভূমি) ও নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আনিসুর রহমানের নেতৃত্বে ভ্রাম্যমাণ আদালত দু’টি পরিচালিত হয়। তিনি জানান, সিরাজগঞ্জ সদর উপজেলার একডালা পূর্বপাড়া গ্রামের মইনুল হকের মেয়ে ও ভেন্নাবাড়ি উচ্চ বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী মায়া আক্তারের (১২) সঙ্গে ঘোড়াচড়া গ্রামের আব্দুল বারীর ছেলে কাউছার হোসেনের (২৫) বিয়ের আয়োজন চলছে।

 এমন গোপন সংবাদের ভিত্তিতে বৃহস্পতিবার রাত সাড়ে ৮টার দিকে সেখানে অভিযান চালানো হয়। এসময় পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে কাজী ও বর পক্ষের লোকজন পালিয়ে গেলেও বরের ফুপা মোশাররফকে আটক করা হয়। পরে ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে তাকে  ৩০ হাজার টাকা জরিমানা, অনাদায়ে এক মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড দেয়া হয়েছে।

এদিকে একই রাতে বাগবাটি পশ্চিমপাড়া গ্রামের শফিকুল ইসলামের মেয়ে স্থানীয় উচ্চ বিদ্যালয়ের অষ্টম শ্রেণির ছাত্রী সুমি খাতুনের (১৪) সঙ্গে বৈদ্যধলডোব পশ্চিমপাড়া গ্রামের ইসহাক আলীর ছেলে আনোয়ার হোসেনের (২৩) বিয়ের আয়োজন চলছিল। একই রাত ১০টার দিকে সেখানে অভিযান চালানো হয়। পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে কাজী কৌশলে পালিয়ে যায়।

এ সময় ভ্রাম্যমাণ আদালত বসিয়ে বরের বাবা ইসহাক আলী ও কনের বাবা শফিকুল ইসলামকে ১০ হাজার টাকা করে জরিমানা, অনাদায়ে এক মাসের বিনাশ্রম কারাদন্ড দেন নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আনিসুর রহমান। আদালত উভয় কনের বাবার কাছ থেকে মেয়ের ১৮ বছর না হওয়া পর্যন্ত বিয়ে দিবেন না মর্মে মুচলেকা নেয়া হয়। এ অভিযানের সময় পৌর ভূমি অফিসের ভূমি সহকারী কর্মকর্তা নজরুল ইসলাম, সদর থানার এসআই রবিউল হাসানসহ পুলিশ ও আনসার সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।


এবিএন/এস.এম তফিজ উদ্দিন/জসিম/তোহা

এই বিভাগের আরো সংবাদ