কয়রায় যথাযোগ্য মর্যাদায় ৪৯তম মহান স্বাধীনতা ও জাতীয় দিবস পালন

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২৬ মার্চ ২০১৯, ১৮:১২

উপজেলা প্রশাসনের উদ্যোগে যথাযোগ্য মর্যাদায় ৪৯তম মহান স্বাধীনতা দিবস পালিত হয়েছে।  এ উপলক্ষে ২৬ মার্চ থানা প্রাঙ্গনে ৩১ বার তোপধ্বনির মধ্য দিয়ে দিবসের শুভ সূচনা করা হয়। সূর্যোদয়ের সাথে সাথে সকাল সাড়ে ৬টায় উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গনের স্মৃতিসৌধে ১৯৭১ সালে মহান স্বাধীনতা যুদ্ধে নিহত বীর শহীদদের স্মৃতির স্মরণে পুস্পমাল্য অর্পণ করেন উপজেলা প্রশাসন, উপজেলা পরিষদ, পুলিশ প্রশাসন, মুক্তিযোদ্ধা সংসদ, আওয়ামী লীগ, বিএনপি, আইনজীবি সমিতি, উপজেলা প্রেসক্লাব, কয়রা সরকারি মহিলা কলেজ, কপোতাক্ষ মহাবিদ্যালয়, কয়রা মদিনাবাদ মডেল সরকারি মাধ্যমিক বিদ্যালয়, সুন্দরবন মাধ্যমিক বালিকা বিদ্যালয়, উত্তরচক কামিল মাদরাসা, কালনা আমিনীয়া ফাজিল মাদরাসা, মদিনাবাদ দাখিল মাদরাসাসহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠান, মানবকল্যান ইউনিট, শিল্পকলা একাডেমি, কয়রা উন্নয়ন সমন্বয় কমিটি, বাজার কমিটি, মদিনাবাদ যুব সংঘ সহ অন্যান্য পেশাজীবি ও সাংস্কৃতিক সংগঠন।

সকাল ৮টায় পরিষদ মাঠের প্যারেড গ্রাউন্ডে একযোগে জাতীয় সংগীত পরিবেশনের মধ্য দিয়ে জাতীয় পতাকা উত্তোলন করা হয়। পতাকা উত্তোলন শেষে সশস্ত্র সালাম ও অভিবাদন গ্রহন করেন উপজেলা নির্বাহী অফিসার শিমুল কুমার সাহা, থানা অফিসার ইনচার্জ তারক বিশ্বাস, সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার এড. কেরামত আলী। চৌকস পুলিশ কর্মকর্তা এসআই শাহাদাত হোসেনের নেতৃত্বে পুলিশ সদস্য, আনসার ভিডিপি, রোভার স্কাউটস সহ বিভিন্ন শিক্ষা প্রতিষ্ঠানের ছাত্র ছাত্রীরা প্যারেডে অংশগ্রহন করে সালাম প্রদর্শন করেন। পরে স্বাধীনতা দিবসের কুজকাওয়াজ ও ডিসপ্লে প্রদর্শিত হয়।

সকাল সাড়ে ১১টায় উপজেলা নির্বাহী অফিসার শিমুল কুমার সাহার সভাপতিত্বে বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনা ও আলোচনা সভা অনুষ্ঠিত হয়। উপজেলা মাধ্যমিক শিক্ষা অফিসার এসএম সুলতান মাহমুদের পরিচালনায় সংবর্ধনা সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্য রাখেন স্থানীয় সংসদ সদস্য আলহাজ আক্তারুজ্জামান বাবু।

আরো বক্তব্য দেন থানা অফিসার ইনচার্জ তারক বিশ্বাস, ইনচার্জ (তদন্ত) মোস্তফা হাবিবুল্লাহ, সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার এড কেরামত আলী, প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা মোঃ জাফর রানা, কৃষি অফিসার এসএম মিজান মাহমুদ, ইউপি চেয়ারম্যান আমীর আলী গাইন, যুব উন্নয়ন কর্মকর্তা আঃ রশিদ খান, মুক্তিযোদ্ধা এসএম রুহুল আমিন, আব্দুর রহমান সানা, নুরমোহাম্মাদ সানা, মুক্তিযোদ্ধা সন্তান আবু তাহের প্রিন্স।

প্রধান অতিথি সংসদ সদস্য আলহাজ আক্তারুজ্জামান বাবু বলেন, স্বাধীনতার মহান স্থপতি বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নেতৃত্বে দেশ স্বাধীন হয়েছে। বঙ্গবন্ধুর স্বপ্ন বাস্তবায়নে ঘুষ, দুর্নীতমুক্ত সমাজ ব্যবস্থা গড়ে তুলতে হবে। এজন্য সকলের সহযোগিতা প্রয়োজন। অনুষ্ঠানে সরকারি কর্মকর্তা, জনপ্রতিনিধি, মুক্তিযোদ্ধা ও মুক্তিযোদ্ধা পরিবারের সদস্যবৃন্দ, সাংবাদিক সহ সুশীল সমাজের প্রতিনিধিরা উপস্থিত ছিলেন।

এদিকে উপজেলা আওয়ামী লীগ উদ্যোগে দলীয় কার্যালয়ে সকাল ১০টায় বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সংবর্ধনার আয়োজন করা হয়। উপজেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি জিএম মহসিন রেজার সভাপতিত্বে সভায় বক্তব্য দেন সাবেক মুক্তিযোদ্ধা কমান্ডার এড. কেরামত আলী, আ’লীগ নেতা এসএম বাহারুল ইসলাম, মুক্তিযোদ্ধা, আব্দুর রহমান সানা, শাহাবুদ্দিন, নুরমোহাম্মাদ সানা, গাজী হুমায়ুন কবির প্রমুখ।

এবিএন/শহীদুল্লাহ/রাজ্জাক

এই বিভাগের আরো সংবাদ