শরীয়তপুরে গৃহবধূর আপত্তিকর ভিডিও ধারণের অভিযোগে আটক ১

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২২ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৬:৫৮

শরীয়তপুর জেলার নড়িয়া থানার পাঁচগাও এলাকায় অভিযান চালিয়ে আপত্তিকর ভিডিও ধারণপূর্বক তা ইন্টারনেটে ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে ৫ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবির অভিযোগে মো. সেলিম হাওলাদার নামের এক বখাটে  যুবককে আটক করেছে  র‌্যাব-৮ মাদারীপুর ক্যাম্পের সদস্যরা।  

র‌্যাব-৮, সিপিসি-৩ সূত্রে জানাযায়, শরিয়াতপুরের নড়িয়া থানার পাঁচগাও নিবাসী উক্ত প্রবাসী দীর্ঘ ০৫ বছর যাবৎ ইতালিতে অবস্থান করায় পার্শ্ববর্তী গ্রামের বখাটে যুবক সেলিম হাওলাদার(২৫) উক্ত প্রবাসীর স্ত্রীকে ফুসলিয়ে গোপন প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলে এবং তাদের অন্তরঙ্গ মূহুর্তের দৃশ্য কৌশলে মোবাইলে ধারণ করে। উক্ত আপত্তিকর দৃশ্য অনলাইনে ছড়িয়ে দেওয়ার ভয় দেখিয়ে ঐ প্রবাসীর স্ত্রীর নিকট হতে কয়েক দফায় মোটা অংকের টাকা হাতিয়ে নেয়। সর্বশেষ আনুমানিক এক সপ্তাহ পূর্বে উক্ত আপত্তিকর ভিডিও মেমোরি কার্ডের মাধ্যমে প্রবাসীর পরিবারের নিকট সরবরাহ করে ৫ লক্ষ টাকা চাঁদা দাবি করে।

এ সংক্রান্তে ভুক্তভোগীর পরিবার আইনগত সহায়তা চেয়ে র‌্যাব-৮, মাদারীপুর ক্যাম্পের নিকট লিখিত অভিযোগ দায়ের করলে র‌্যাব-৮, সিপিসি-৩, মাদারীপুর ক্যাম্পের একটি বিশেষ দল কোম্পানী অধিনায়ক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মো. রইছ উদ্দিন এর নেতৃত্বে ২২ ফেব্রুয়ারি শুক্রবার সকালে অভিযান চালিয়ে অভিযুক্ত বখাটে  সেলিম হাওলাদারকে তার নিজ বাড়ী হতে আটক করা হয় ।

এ সময় তার নিকট হতে উক্ত আপত্তিকর ভিডিও ও ছবি সম্বলিত মোবাইল ও মেমোরি কার্ড জব্দ করা হয়। আটককৃত সেলিম শরীয়তপুর জেলার নড়িয়াথানার পাঁচগাও গ্রামের মৃত মতিউর রহমান হাওলাদারের ছেলে।
 
র‌্যাব-৮, সিপিসি-৩, মাদারীপুর ক্যাম্পের কোম্পানী অধিনায়ক অতিরিক্ত পুলিশ সুপার মোঃ রইছ উদ্দিন জানান, আটককৃত আসামী সেলিম প্রাথমিক জিজ্ঞাসাবাদে অভিযোগের বিষয়ে সত্যতা স্বীকার করে। আটককৃত আসামীকে শরীয়তপুর জেলার নড়িয়া থানায় হস্তান্তর করা হয়েছে ।


এবিএন/সাব্বির হোসাইন/জসিম/তোহা

এই বিভাগের আরো সংবাদ