পীরগাছায় নিখোঁজের পর কিশোরের মরদেহ উদ্ধার

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১১ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ১৬:১৬

রংপুরের পীরগাছায় নিখোঁজের ৪ দিন পর ফিরোজ মিয়া (২২) নামে এক কিশোরের অর্ধগলিত মরদেহ উদ্ধার করেছে পুলিশ। 

সোমবার উপজেলার গুচ্ছ গ্রামে একটি নির্মাণাধীন বাড়ি থেকে মাটিচাপা অবস্থায় নিহতের মরদেহটি উদ্ধার করা হয়। নিহত ফিরোজ উপজেলার কান্দি ইউনিয়নের কাবিলাপাড়া গ্রামের আমির উদ্দিনের ছেলে। 

এ ঘটনায় জড়িত সন্দেহে উপজেলার কাবিলাপাড়া গ্রামের শফিকুল ইসলামের ছেলে টিপু (২৬), মৃত আওয়াল মিয়ার ছেলে শাহিন মিয়া (২৫), মতিল চৌকিদারের ছেলে সুলতান হোসেন ও পার্শ¦বর্তী দোয়ানী গ্রামের নুর মোহাম্মদের ছেলে জাহিদুল ইসলামকে (২৪) আটক করেছে পুলিশ ।

পুলিশ, স্থানীয় লোকজন ও স্বজনরা জানায়, গত বৃহস্পতিবার সন্ধ্যার পর থেকে ফিরোজের কোনো খোঁজ পাচ্ছিলেন না পরিবারের লোকজন। অনেক খোঁজাখুঁজির পর কোথাও না পেয়ে শনিবার পীরগাছা থানায় একটি সাধারণ ডায়েরি (জিডি) করেন তার বাবা।

সোমবার সকালে বাড়ি থেকে প্রায় আধা কিলোমিটার দূরে স্থানীয়রা একটি নির্মাণাধীন গুচ্ছ গ্রামে মাটি চাপা অবস্থায় মরদেহ দেখতে পেয়ে পুলিশকে খবর দেয়। খবর পেয়ে পুলিশ ঘটনাস্থলে গিয়ে মরদেহটি উদ্ধার করে। নিহত ফিরোজের সঙ্গে আটককৃতদের স্থানীয় কান্দি বাজারের একটি চায়ের দোকানে বৃহস্পতিবার শেষবার দেখা গেছে বলে প্রত্যক্ষদর্শীরা জানায়।

নিহতের বাবা আমির উদ্দিন জানান, আমার ছেলের সঙ্গে কারও শত্রুতা নেই। তবে নিখোঁজের দিন তার সাথে প্রায় লক্ষাধিক টাকা ছিল। ওই টাকা হাতিয়ে নিতেই তাকে পরিকল্পিতভাবে হত্যা করা হয়েছে।

তথ্যের সত্যতা নিশ্চিত করে পীরগাছা থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) রেজাউল করিম জানান, নিখোঁজের পর পরিবারের পক্ষ থেকে থানায় জিডি করা হয়েছে। পুলিশ ঘটনাস্থলে পৌঁছে মরদেহের সুরতহাল রিপোর্ট তৈরি করছে। এ ঘটনায় ৪ জনকে আটক করে জিজ্ঞাসাবাদ চলছে। 

এবিএন/মো: মিজানুর রহমান/গালিব/জসিম
 

এই বিভাগের আরো সংবাদ