‘সুনামগঞ্জকে উন্নয়নের মহাসড়কে নিয়ে যাব’

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২২ জানুয়ারি ২০১৯, ১২:৪৪

                      

একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে বিপুল ভোটে জয়ী হওয়া সুনামগঞ্জ-৪ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাড. পীর ফজলুর রহমান মিসবাহকে সংবর্ধনা দিয়েছে মাইজবাড়ী গ্রামবাসী। 

সোমবার রাতে মাইজবাড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয় মাঠ প্রাঙ্গনে কুরবাননগর ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান আবুল বরকতের সভাপতিত্বে সংবর্ধনা অনুষ্ঠিত হয়। 

এতে সংবর্ধিত অতিথির বক্তব্যে সুনামগঞ্জ-বিশ্বম্ভরপুর ৪ আসনের সংসদ সদস্য অ্যাড. পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ বলেন, একাদশ জাতীয় সংসদ নির্বাচনে আপনারা আমাকে বিপুল ভোটে জয়ী করেছেন, সে জন্য আমি আপনাদের কাছে চির কৃতজ্ঞ। আপনারা আমার প্রতি যে ভালবাসা দেখিয়েছেন তার কাছে আমি চির ঋণী, এই ঋণ কখনও ভুলা যাবে না। 

তিনি আরো বলেন, মাইজবাড়ী গ্রামের কবরস্থানের জন্য এলজিডির মাধ্যমে ৪ লক্ষ টাকা বরাদ্ধ দিয়েছি, মাইজবাড়ীর পশ্চিম পাড়া জামে মসজিদের নির্মাণে ১৫ লক্ষ টাকা একটা টেন্ডার প্রক্রিয়া শুরু হয়েছে, আশা করি খুব দ্রুত এই গুলোর কাজ শুরু হবে। 

আমি কথা দিলাম আমি আর আমার বড় ভাই জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি নুরুল হুদা মুকুট ভাইকে নিয়ে এই গ্রামে একটা হাই স্কুল তৈরী করে দিব। 

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে প্রধান অতিথির বক্তব্যে জেলা পরিষদের চেয়ারম্যান ও জেলা আওয়ামী লীগের সিনিয়র সহ-সভাপতি নুরুল হুদা মুকুট বলেন, মাইজবাড়ী গ্রামের গর্ব হচ্ছে অ্যাড.পীর ফজলুর রহমান মিসবাহ। কারণ পীর মিসবাহ হচ্ছে একজন সৎ, আর্দশবান একজন মানুষ। 

সে গত ৫বছর সংসদ সদস্য হয়ে নিজের কোন পরিবর্তন করেনি, সাধারণ মানুষের পরিবর্তন করেছে। নিজের বাসার কোন উন্নয়ন করেনি, গ্রামগঞ্জের উন্নয়ন করেছে। এই রকম একজন এমপির জন্ম আপনাদের গ্রামে হওয়ায় আপনারা ধন্য। 

তিনি আরো বলেন, অ্যাড.পীর মিসবাহকে আমি আমার আপন ছোট ভাইয়ের মত দেখি। আজকে সে বিপুল ভোটে এমপি নির্বাচিত হয়েছে। আমরা দুই ভাই মিলে কাজ করলে সুনামগঞ্জকে উন্নয়নের মহাসড়কে পরিণত করতে পারব, মহাসড়কে নিয়ে যাব। 

এ ছাড়া সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে আরো বক্তব্য রাখেন, শিক্ষক নুরুল হক মাস্টার, তাহিরপুর উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ স¤পাদক অমল কর, মাইজবাড়ী সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মোহাম্মদ গিয়াস উদ্দিন, কুরবান নগর আওয়ামী লীগের সভাপতি তৈয়ব আলী, আওয়ামী লীগ নেতা সারাজ উদ্দিন, ইউপি সদস্য নুরুদ্দিন আহমদ, নুরুল হক, আব্দুল কাইয়ূম, করিমুন নেছা প্রমুখ। 

আলোচনা সভা পরিচালনা করেন, জেলা জাতীয় পার্টির নেতা জসিম উদ্দিন সরকার, জাহাঙ্গীর আলম।

এবিএন/অরুন চক্রবর্তী/গালিব/জসিম
 

এই বিভাগের আরো সংবাদ