মানবতার দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন ফৌজদারহাট ফাঁড়ির পুলিশ মো. ফেরদৌস

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২০ জানুয়ারি ২০১৯, ১৮:৫২

দুর্ঘটনাস্থলে গুরুতর আহত হয়ে মৃত্যুর সাথে পাঞ্জা লড়ছে এক যুবক। তার দুর্বল সুরে চিৎকার করার শক্তি হারালেও তার ঝাপসা চোখ আর আকুলার্থ মন তখন পাশে জটলা হয়ে দাড়িয়ে থাকা লোকগুলোর সাহায্য চাইছে।

কিন্তু তার আকুল আর্তনাদ কারো কান পর্যন্ত পৌছায়নি, কারো চোখে তার জন্য একটুও মমত্ববোধ জন্মেনি। বরং তখন সকলেই ব্যস্থ মোবাইলের ফ্রেমে ছবিটি তুলে দ্রুত ফেসবুকে আপলোড দিয়ে বেশি লাইক কমেন্ট শেয়ারের আশায়। কেউবা নীরব দর্শক ! এ দৃশ্য দেখলে যে কারোরোই মনে হবে দেশে আজ বুঝি মানবতার কবর রচনা হয়েছে।

কিন্তু এমন মনে করাটাই ভূল! সড়ক দুর্ঘটনায় আহত ব্যক্তিকে নিজের শরীরের সকল শক্তি দিয়ে হাসপাতালে নেওয়ার চেষ্টা করছে এটি এস আই মো. ফেরদৌস।

গতকাল শনিবার (১৯ জানুয়ারী) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে উপজেলার সলিমপুর এলাকার ফৌজদারহাটের সাঙ্গু রাস্তার মাথায় মোটর সাইকেল ও লরির সংঘর্ষে দুইজন আহত হয়। খবর পেয়ে দূর্ঘটনাস্থলে ছুটে গেলেন ফৌজদারহাট পুলিশ ফাঁড়ির এটিএসআই মো. ফেরদৌস।

 তিনি আহতদের উদ্ধার করে একাই কোলে নিয়ে গাড়িতে তুলে দিয়ে নিয়ে গেলেন হাসপাতালে। মানবতার দৃষ্টান্ত স্থাপন করলেন মো. ফেরদৌস। তার ছবিটি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যম ফেসবুকে বেশ ভায়রাল হতে থাকে। অনেকেই এমন মানবতার সেবার জন্য এটিএসআই ফেরদৌসককে অভিনন্দন জানান।

এব্যাপারে জানতে চাইলে ফৌজদারহাট পুলিশ ফাঁড়ির ইনচার্জ রফিক আহমেদ মজুমদার বলেন, পুলিশকে মানুষ সবসময় ভয়ংকর প্রাণী ভাবে, পুলিশও যে সমাজের অন্য মানুষগুলোর মতো তা অনেকে মনে করেন না, আমাদের কাজই হলো মানবতার জন্য, মানুষের সেবাই পুলিশের ধর্ম। পুলিশ কখনও জনগনের শত্রু নয় জনগনের বন্ধু।


এবিএন/রাজীব সেন প্রিন্স/জসিম/তোহা

এই বিভাগের আরো সংবাদ
well-food