ধুনটে দ্বিতীয় দফায় ৪৩তম বিশ্ব ইজতেমা শুরু

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১৭ জানুয়ারি ২০১৯, ২২:১৭

বগুড়ার ধুনট উপজেলার সরুগ্রাম উচ্চ বিদ্যালয়ের সামনে ৪৩তম বিশ্ব ইজতেমা শুরু হয়েছে। বুধবার বাদ মাগরিব বগুড়া মার্কাস মসজিদের মুফতি কেফায়েত উল্লাহ সাহেবের উদ্বোধনী আম বয়ানের মধ্য দিয়ে ইজতেমা শুরু হয়।  

আজ বৃহস্পতিবার সকাল থেকে ইন্দোনেশিয়া, থাইল্যান্ড ও ভারতের একটি বিদেশী জামাত ছাড়াও দেশের বিভিন্ন এলাকা থেকে হাজারো ধর্মপ্রাণ মুসল্লিগণ জামাত বন্দি হয়ে ইজতেমায় অংশ নেন।

তবে টঙ্গির বিশ্ব ইজতেমা সফল করতে ঢাকার কাকরাইল মসজিদের তত্বাবধায়নে যুগ যুগ ধরে ধুনট উপজেলার সরুগ্রামে ইজতেমা অনুষ্ঠিত হলেও তাবলিক জামাতের কেন্দ্রীয় বিভক্তির কারনে এবছর ধুনট উপজেলাতে দু’দফা পৃথক স্থানে ইজতেমার আয়োজন করা হয়। প্রথম দফা ১০, ১২ ও ১৩ জানুয়ারি ধুনট পৌর এলাকার পূর্বভরনশাহী গ্রামের ইছামতি নদীর তীরে ইজতেমা অনুষ্ঠিত হয়েছে।

সরুগ্রাম ইজতেমা আয়োজক কমিটির সদস্য মোহাম্মদ আলী জন জানান, যুগ যুগ ধরে সরুগ্রামে ইজতেমা অনুষ্ঠিত হয়ে আসছে। কিন্তু এবছর তাবলিক জামাতের কেন্দ্রীয় বিভক্তির কারনে ধুনটে প্রথম দফায় ইজতেমা পৃথক স্থানে অনুষ্ঠিত হয়। তারপরও সরুগ্রামের ইজতেমায় দূর দূরান্ত থেকে হাজারো ধর্মপ্রাণ মুসল্লিগণ অংশ নিচ্ছেন। তবে অভ্যন্তরীন দ্বন্দ্বের কারনে সরুগ্রাম ইজতেমার সামিয়ানা, পানির মেশিনসহ বিভিন্ন সরঞ্জামাদি দেয়া হয়নি বলে তিনি অভিযোগ করেন।

তিনি বলেন, বগুড়া পুরাতন মার্কাস মসজিদের তত্ববধায়নে ইজতেমার সকল সরঞ্জামাদি সংরক্ষন থাকলেও আয়োজক কমিটি দু’ভাগে বিভক্ত হওয়ায় সেগুলো আর সরুগ্রাম ইজতেমার আয়োজক কমিটিকে দেয়া হয়নি। পরে জয়পুরহাট থেকে সকল সরঞ্জামাদি সংগ্রহ করে ইজতেমার আয়োজন করা হয়েছে বলে তিনি জানান।

ইজতেমার আয়োজন কমিটির সদস্য আল-ইমরান জানান, বুধবার বাদ মাগরিব বগুড়া মার্কাস মসজিদের মুফতি কেফায়েত উল্লাহ সাহেবের উদ্বোধনী আম বয়ানের মধ্য দিয়ে সরুগ্রামে ৪৩তম ইজতেমা শুরু হয়েছে।  বৃহস্পতিবার বাদ ফজর থাইল্যান্ড তাবলিক জামাতের সাথি মাওলানা মেসবাহ্ উদ্দিন, বাদ যোহর ঢাকার কাকরাইল মসজিদের মুরব্বী মাওলানা শামছুদ্দিন ও বাদ আছর মাওলানা ফজলুল হক সাহেব কোরআন ও হাদিসের আলোকে গুরুত্বপূর্ণ হেদায়েতের বয়ান পেশ করেন।

ধুনট থানার অফিসার ইনচার্জ (ওসি) ইসমাইল হোসেন বলেন, ইজতেমার মুসল্লিগণের নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে আইনশৃঙ্খলা বাহিনীর ২২০ জন সদস্য দায়িত্ব পালন করছেন।

এবিএন/ইমরান হোসেন ইমন/জসিম/রাজ্জাক

এই বিভাগের আরো সংবাদ