চকরিয়া স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সেবার মানোন্নয়নে মতবিনিময় সভা

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১৬ জানুয়ারি ২০১৯, ২২:০৬

চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে স্বাস্থ্য সেবার মানোন্নয়নে এক মতবিনিময় সভা অনুষ্টি হয়েছে।  আজ বুধবার বিকালে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের হল রুমে সচেতন নাগরিক কমিটি (সনাক), চকরিয়ার উদ্যোগে মতবিনিময় সভায় সভাপতিত্ব করেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকতা ডা. মোহাম্মদ শাহবাজ।

মতবিনিময় সভায় বক্তব্য রাখেন- সনাক চকরিয়ার সভাপতি অধ্যাপক এ কে এম শাহাবুদ্দিন, জুনিয়র কনসালটেন্ট (গাইনী) ডা. মর্তুজা বেগম, আবাসিক মেডিকেল অফিসার (আরএমও) ডা. শোভন দত্ত, সনাক সদস্য ও স্বাস্থ্য উপকমিটির আহবায়ক অধ্যাপক বুলবুল জান্নাত শাহীন, সনাক সদস্য জিয়া উদ্দিন। এ সময় উপস্থিত ছিলেন জুনিয়র কনসালটেন্ট ডা. মুজিবুল হক, ডেন্টাল সার্জন ডা. মহিম উদ্দিন ও টিআইবির এসিস্টেন্ট ম্যানেজার মিটন বনিক বাবু।

শুরুতে সবাইকে স্বাগত জানিয়ে চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে বর্তমান কর্তৃপক্ষের গৃহিত বিভিন্ন কার্যক্রমের ফলে অগ্রগতির প্রতিবেদন তুলে ধরেন টিআইবির এরিয়া ম্যানেজার এ.জি.এম জাহাঙ্গীর আলম। প্রতিবেদনে চকরিয়া উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের সেবার মানোন্নয়ন,স্বচ্ছতা ও জবাবহিদিতা বৃদ্ধিতে কর্তৃপক্ষের গৃহিত উদ্যোগ সন্তোসজনক বলে মতামত ব্যক্ত করা হয়।

মুক্ত আলোচনায় অংশ নিয়ে চকরিয়ার স্বাস্থ্য সেবার অগ্রগতিতে অর্জিত সাফল্যকে ধরে রাখতে মনিটরিং ব্যবস্থা জোরদার করা এবং ইউনিয়ন পর্যায়ে বিদ্যমান উপস্বাস্থ্য কেন্দ্র ও কমিউটিনটি ক্লিনিকের স্বাস্থ্যসেবা আরো জোরালো করতে স্থানীয় জনগনের সম্পৃক্ততা বৃদ্ধি, স্বাস্থ্য বিষয়ক প্রচারণা, স্কুলে স্বাস্থ্য ক্যাম্পেইন আয়োজনসহ প্রয়োজনীয় উদ্যোগ গ্রহনে কর্তৃপক্ষের দৃষ্টি করা হয়।

সভার সভাপতি ও উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মো.শাহবাজ বলেন, ইউনিয়ন পর্যায়ে উপস্বাস্থ্য কেন্দ্র ও কমিউনিটি ক্লিনিকে বর্তমানে সাধারণ জনগন নিয়মিত সেবা নিচ্ছেন। যার ফলে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আগের মত রোগীর চাপ ততটা নেই। উপস্বাস্থ্য কেন্দ্র গুলোতে এমবিবিএস ডাক্তার দিয়ে সেবা দিতে পারলে জনগন অনেক বেশী উপকৃত হত। কিন্তু আন্তরিকতা থাকলেও প্রয়োজনীয় সংখ্যক ডাক্তার না থাকায় সেটা হচ্ছে না।

এবিএন/মুকুল কান্তি দাশ/জসিম/রাজ্জাক

এই বিভাগের আরো সংবাদ