গলাচিপায় রোটা ভাইরাস জনিত ডায়রিয়ায় আক্রান্ত শিশু ও বৃদ্ধারা

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১১ জানুয়ারি ২০১৯, ১৫:৪২

পটুয়াখালীর গলাচিপায় শীতের প্রকোপ যত বাড়ছে শীত জনিত রোগ ডায়রিয়া ও শ্বাস কষ্ট জনিত রোগে বেশী আক্রান্ত হচ্ছেন শিশু ও বৃদ্ধরা।

 এ কারনে শীত জনিত ডায়রিয়া ও শ্বাস কষ্ট জনিত রোগ প্রতিরোধে সর্তক থাকার প্রতি গুরুত্ব দিচ্ছেন চিকিৎসকরা। তাদের আশংকা শৈত্যপ্রবাহ বাড়লেই বাড়বে ডায়রিয়া ও শ্বাস কষ্ট সহ শীত জনিত রোগ। আবহওয়া অধিদপ্তর জানিয়েছে, জানুয়ারী মাসের শেষ সপ্তাহে আরো একটি শৈত্যপ্রবাহ হতে পারে।

 স্বাস্থ্য অধিদপ্তর জানিয়েছে, ঠান্ডার কারনেই হাসপাতালে শীত জনিত ডায়রিয়া আক্রান্ত ও শ্বাস কষ্ট জনিত রোগীর সংখ্যা বাড়ছে। এদের বেশীর ভাগই শিশু। এরা রোটা ভাইরাস জনিত ডায়রিয়ায় আক্রান্ত হয়ে হাসপাতালে ভর্তি হচ্ছে।

আজ শুক্রবার গলাচিপা উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সের পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডাঃ মো. মনিরুল ইসলামকে হাসপাতালের বেডে চিকিৎসা রত অবস্থায় পাওয়া গেলে তিনি জানান, এক বছরের এক মেয়ে শিশুকে নিয়ে এসেছেন তার মা। তিনি বলেন, কয়েকদিন ধরেই নাকি তার মেয়ের পাতলা পায়খানার  কারনে শিশুটি দূর্বল হয়ে পড়েছে। তাই তাকে হাসপাতালে নিয়ে এসেছেন।

এরপরে পাশের বেডে থাকা রাহিমা বেগমের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, তার মেয়ে রেনু বেগম বয়স ১ বৎসর ৩ মাস। তার ডায়রিয়া কমছে না দেখে হাসপাতালে নিয়া এসেছে। এ ব্যাপারে অন্যান্য চিকিৎসকরা বলেন, দূষিত পানি, দূষিত খাবার এবং পরিবেশের কারনে বিভিন্ন বয়সের শিশু ও বৃদ্ধ সহ সমস্ত মানুষই কম বেশী আক্রান্ত হচ্ছে।

 সেজন্য সব সময় হাত পরিষ্কার রাখা, টয়েলেট ব্যবহারের পর সাবান দিয়ে হাত-পা ধোয়া ও ছোট শিশুদের শুধু মায়ের বুকের দুধ পান করানো। ডায়রিয়া হলে ওরস্যালাইন খাওয়ানোর সর্তকতা হিসেবে আমরা এই মেসেজগুলো দেই। চিকিৎসকরা আরও বলেন, শৈত্যপ্রবাহ বাড়লে শীত জনিত রোগে বৃদ্ধ ও শিশুদের স্বাস্থ্য ঝুকি রয়েছে। এ অবস্থায় রোগীদের সর্তক থাকা প্রয়োজন।

 

এবিএন মু.জিল্লুর রহমান জুয়েল/জসিম/তোহা

এই বিভাগের আরো সংবাদ