চরফ্যাশনে স্বামীর দেয়া কেরোসিনের আগুনে ঝলসে গেছে স্ত্রী

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১৮ মে ২০১৮, ২১:২৪

চরফ্যাশন, ১৮ মে, এবিনিউজ : ভোলার চরফ্যাশন পৌরসভার ৫নম্বর ওয়ার্ডের খাসপাড়ায় পারিবারিক কলহের জের ধরে বৃহস্পতিবার রাতে দুই সন্তানের জননী ফাতেমা বেগমকে গায়ে কেরোসিন দিয়ে আগুন লাগিয়ে হত্যাচেষ্টা করেছে তার স্বামী। এ ঘটনায় চরফ্যাশন থানায় মামলা হয়েছে।


 
আজ শুক্রবার অগ্নিদগ্ধ গৃহবধূর বোন নুরজাহান বেগম বাদী হয়ে স্বামী আলাউদ্দিন, তার বাবা হাবিবুল্যাহ এবং মা আছুরা বেগমকে আসামি করে চরফ্যাশন থানায় মামলাটি দায়ের করেছেন। পুলিশ ফাতেমার স্বামী আলাউদ্দিনকে গ্রেফতার করেছে।

 

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানা গেছে, চরফ্যাশন পৌরসভার ৫নম্বর ওয়ার্ডের খাসপাড়াস্থ স্বামী আলাউদ্দিনের বসতঘরে বৃহস্পতিবার রাতে পারিবারিক কলহে স্বামী-স্ত্রীর মধ্যে ঝগড়া হয়। এই ঝগড়াকে কেন্দ্র করে স্বামী আলাউদ্দিন স্ত্রী ফাতেমাকে মারধর করেন। পরে কেরোসিন ঢেলে গায়ে আগুন ধরিয়ে দিয়ে দুই সন্তানকে নিয়ে ঘর থেকে বের হয়ে যান।

 

ফাতেমার চিৎকারে প্রতিবেশীরা এসে বসতঘরের বারান্দা থেকে অগ্নিদগ্ধ ফাতেমাকে উদ্ধার করে চরফ্যাশন হাসপাতালে ভর্তি করে।

 

চরফ্যাশন উপজেলা স্বাস্থ্য পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. শোভন বসাক জানান, ভিকটিমের কোমর থেকে শরীরের ওপরের অংশ আগুনে ঝলসে বেশি ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে। গুরুতর অবস্থায় তাকে ভোলা সদর হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে।

 

চরফ্যাশন থানার ওসি ম.এনামুল হক জানান, গৃহবধূকে আগুনে পুড়িয়ে হত্যাচেষ্টার অভিযোগে মামলা হয়েছে। ফাতেমার স্বামী আলাউদ্দিনকে তার বাড়ি থেকে গ্রেফতার করা হয়েছে। শ্বশুর-শাশুড়িকে গ্রেফতারে পুলিশি তৎপরতা অব্যাহত আছে।

 


এবিএন/মমিন/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ
well-food