আজকের শিরোনাম :

তিতাসের ৯ টি ইউনিয়নে আওয়ামী লীগের প্রার্থী চুরান্ত

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১৩ অক্টোবর ২০২১, ১৯:২২

তিতাসের আসন্ন ইউপি নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে আওয়ামীলীগের দলীয় প্রার্থী নির্বাচিত করেছেন দলের শীর্ষ নেতারা। এদের মধ্যে রয়েছে নতুন মূখ ৪ জন আর বর্তমান চেয়ারম্যান ৫ জন। গত মঙ্গলবার সন্ধায় সরকারী বাসভবন গনভবনে অনুষ্ঠিত মনোনয়ন বোর্ডের সভায় স্থানীয় সরকার নির্বাচন (ইউপি) চেয়ারম্যান পদে দলীয় প্রার্থী নির্বাচিত করার লক্ষে গঠিত মনোনয়ন বোর্ডের সভাপতি ও প্রধানমন্ত্রী এবং আওয়ামীলীগের সভাপতি শেখ হাসিনার উপস্থিতিতে কুমিল্লার তিতাস উপজেলার ৯টি ইউনিয়নে দলীয় প্রার্থীর নাম চুরান্ত ঘোষণা করা হয়। রাত দশ টায় এখবর নির্বাচনী এলাকায় জানা জানি হলে কর্মী সমর্থকরা আনন্দ উল্লাসে মেতে উঠে এবং বাজি বন্দুক ফুটিয়ে উল্লাস করার পাশাপাশি জয় বাঙ্গলা,জিতবে এবার নৌকা শ্লোগানে শ্লোগানে মুখরিত হয়ে উঠে প্রতিটি ইউনিয়ন।

মনোনীত প্রার্থীরা হলেন ১নং সাতানী ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান ও সাতানী ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি মো.সামসুল হক সরকার,২নাং জগতপুর ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান মো. মজিবুর রহমান, ৩নং বলরামপুর ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান ও উপজেলা স্বেচ্ছাসেবক লীগের আহ্বায়ক মো.নুর নবী, ৪নং কড়িকান্দি ইউনিয়নে নতুন মূখ উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক সাইফুল আলম মুরাদ, ৫নং কলাকান্দি ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান ও কলাকান্দি ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি হাবিবুল্লাহ বাহার, ৬নং ভিটিকান্দি ইউনিয়নে নতুন মূখ আওয়ামীলীগ নেতা বাবুল আহম্মেদ ৭নং নারান্দিয়া ইউনিয়নে নতুন মূখ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সভাপতি আরিফুজ্জামান খোকা, ৮নং জিয়ারকান্দি ইউনিয়নে বর্তমান চেয়ারম্যান হাজী আলী আশ্রাফ এবং ৯নং মজিদপুর ইউনিয়ন থেকে নতুন মূখ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক মো. জাহাঙ্গীর আলম। তারা পর্তেকেই আসাবাদী নৌকা প্রতীক নিয়ে বিজয়ী হবে। তবে প্রতিটি ইউনিয়নে একাধিক প্রার্থী থাকার সম্ভাবনা রয়েছে। এদিকে নির্বাচনে চেয়ারম্যান পদে নতুন মূখ দেখে বেশ কয়েকটি ইউনিয়নে বিদ্রোহী প্রার্থী হয়ে নির্বাচন করার প্রস্তুতি নিচ্ছে অনেকে এমন আলোচনা চলছে বিভিন্ন হাট বাজারের চায়ের দোকানে।

১নং সাতানী ইউনিয়ননে আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থী মো.শামসুল হক সরকার বলেন গত নির্বাচনেও আমাকে নৌকা প্রতীক দিয়ে ছিল আমি বিপুল ভোটে নির্বাচিত হয়েছি। এবারও আশা করি ইউনিয়নবাসী আমাকে নির্বাচিত করবে ইনশাআল্লাহ।
২নং জগতপুর ইউনিয়নের আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থী মজিবুর রহমান বলেন গত নির্বাচনে নৌকা প্রতীক নিয়ে জনগনের ভোটে বিজয়ী হয়ে ইউনিয়নবাসীর সেবায় নিয়োজিত ছিলাম। আশা করি এবারও ইউনিয়নবাসী আমাকে ভোট দিয়ে বিজয়ী করে আমার অসমাপ্ত কাজগুলো করার সুযোগ করে দিবেন।
৩নং বলরামপুর ইউনিয়নে আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থী মো.নুর নবী বলেন গত নির্বাচন নৌকা প্রতীক নিয়ে প্রতিদ্বন্দ্বিতা করে ইউনিয়নবাসীর ভোটে নির্বাচিত হয়েছি এবং ইউনিয়নে অবকাঠামো উন্নয়নসহ নানাহ উন্নয়নমূলক কাজ করেছি। এবারও ইনশাআল্লাহ নৌকা প্রতীক পেয়েছি। আশা করি ইউনিয়নবাসী গত বারের ন্যয় এবারও আমাকে নির্বাচিত করবে ইনশাআল্লাহ।
৪নং কড়িকান্দি ইউনিয়নে আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থী ক্লিন ইমেজের নেতা ও উপজেলা যুবলীগের আহ্বায়ক সাইফুল আলম মুরাদ বলেন মাননীয় প্রধানমন্ত্রী ও আমাদের এমপি মহোদয় আমাকে নৌকা প্রতীক দিয়েছেন, আশা করি ইউনিয়নবাসীর বিপুল ভোটে নির্বাচিত হয়ে উঠেছে আওয়ামীলীগকে শক্তিশালী করবো ইনশাআল্লাহ।
৫নং কলাকান্দি ইউনিয়নে আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থী হাবিবুল্লাহ বাহার বলেন গত নির্বাচনে নৌকা নিয়ে ইউনিয়নবাসীর বিপুল ভোটে নির্বাচিত হয়েছি। এবারও ইনশাআল্লাহ ইউনিয়নবাসী বিপুল ভোট দিয়ে নির্বাচিত করবে বলে আমি বিশ্বাস করি।
৬নং ভিটিকান্দি ইউনিয়নে আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থী বাবুল আহম্মেদ বলেন ইউনিয়নবাসী পরিবর্তন চেয়েছে, তাই আমি ইউনিয়নবাসীর চিন্তা করে নৌকার প্রত্যাশী হয়েছি,সকলের দোয়ায় নেতৃবৃন্দ আমাকে নৌকা প্রতীক দিয়েছে, আলহামদুলিল্লাহ। আশা করি ইউনিয়নের সর্বস্তরের জনগণ বিপুল ভোটে নৌকা মার্কাকে নির্বাচিত করবে ইনশাআল্লাহ।
৭নং নারান্দিয়া ইউনিয়নে আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থী আরিফুজ্জামান খোকা বলেন গত নির্বাচনেও আমি সত্বন্ত্র প্রার্থী ছিলাম আমাকে নির্বাচন করতে দেয়নি,তখনও আমি বিপুল ভোটে নির্বাচিত হতাম। এবার সকলের দোয়ায় নেতৃবৃন্দ আমাকে নৌকা দিয়েছে, নারান্দিয়া ইউনিয়নবাসী বিপুল ভোটে নৌকাকে বিজয়ী করবে ইনশাআল্লাহ।
৮নং জিয়ারকান্দি ইউনিয়নে আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থী হাজ্বী আলী আশ্রাফ বলেন উপ নির্বাচনে নৌকা প্রতীক নিয়ে বিজয়ী হয়েছি।আল্লাচাহেত এবারও সকলের দোয়ায় এবং সুষ্ঠু নির্বাচন হলে বিপুল ভোটে বিজয়ী হইবো ইনশাআল্লাহ।

৯নং মজিদপুর ইউনিয়নে নতুন মূখ ইউনিয়ন আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক আওয়ামীলীগের মনোনীত প্রার্থী মো. জাহাঙ্গীর আলম বলেন দুই বছর ধরে ইউনিয়নবাসীর সেবায় নিজেকে নিয়োজিত রেখেছি এবং মজিদপুর ইউনিয়ন আওয়ামীলীগকে শক্তিশালী করেছি।আমার ইউনিয়নবাসীর ভোটের মাধ্যমে নৌকার বিজয় হবে ইনশাআল্লাহ।

নির্বাচন কমিশন কতৃক ঘোষিতব্য তফসিল অন্যুায়ী ১৭ অক্টোবর মনোনয়ন জমা দেওয়ার শেষ তারিখ। ১১ নভেম্বর তিতাসের ৯টি ইউনিয়নে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হওয়ার কথা রয়েছে।
 

এবিএন/কবির হোসেন/জসিম/তোহা

এই বিভাগের আরো সংবাদ
ksrm