পতেঙ্গা সমুদ্র সৈকতের পানিতে দুই কলেজ ছাত্র নিখোঁজ

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৮:৫৮

চট্টগ্রাম নগরীর পতেঙ্গা সমুদ্র সৈকতে পানিতে নেমে স্রোতের টানে ভেসে গেছে দুই কলেজ শিক্ষার্থী।  পানিতে তলিয়ে যাওয়ার বিষয়টি টের পেয়ে সৈকতের কয়েকজন ফটোগ্রাফার এক শিক্ষার্থীকে উদ্ধার করতে পারলেও অন্য শিক্ষার্থী এ রিপোর্ট লেখা পর্যন্ত নিখোঁজ রয়েছে।  নিখোঁজ শিক্ষার্থীকে উদ্ধারে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরিরা চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে। 

জানা যায়, দুজনই নৌবাহিনী স্কুল অ্যান্ড কলেজের একাদশ শ্রেণির শিক্ষার্থী।  এদের মধ্যে এখনো নিখোঁজ রয়েছে আসিফ শাহরিয়ার রুবেল।  সে কক্সবাজারের চকরিয়া উপজেলার দুলাহাজরা গ্রামের মো.বারেকুল হকের ছেলে। 

অন্যদিকে আসিফের সহকর্মী নাফিস খানকে সৈকতের কয়েকজন ফটোগ্রাফার উদ্ধার করে স্থানীয় একটি বেসরকারি ক্লিনিকে ভর্তি করে দেন। নাফিস খান চট্টগ্রাম নগরীর চান্দগাঁও থানার পাঠাইন্যাগোদা এলাকার আসউর খানের ছেলে বলে জানা গেছে।

পতেঙ্গা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) আবুল কাশেম ভূঁইয়া জানান, আজ মঙ্গলবার (১১ সেপ্টেম্বর) সকাল ১১ টা থেকে ১২ টার মধ্যে কলেজ ফাঁকি দিয়ে দুই শিক্ষার্থী পতেঙ্গা সমুদ্র সৈকতে নামলে এ দুর্ঘটনাটি ঘটে। 

তিনি প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাত দিয়ে বলেন, তারা দুজন যখন সমুদ্রের পানিতে নামে তখন ঢেউয়ে উত্তাল ছিলো সমুদ্র। মুহুর্ত্বের মধ্যে তলিয়ে যায় দুজন। সৈকতের পারে ভাসমান ফটোগ্রাফাররা চেষ্টা চালিয়ে নাফিসকে উদ্ধার করলেও আসিফ নামে অপর শিক্ষার্থী এখনো নিখোঁজ রয়েছে।  পরে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি টিমকে খবর দেওয়া হয়।  খবর পেয়ে দুপুর সাড়ে ১২ টার পর থেকে ফায়ার সার্ভিস ও নৌবাহিনীর ডুবুরি দল যৌথভাবে আসিফকে উদ্ধারে চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছে।

চট্টগ্রামের ফায়ার সার্ভিসের সহকারী পরিচালক কামাল উদ্দিন জানান, সমুদ্রে শিক্ষার্থী নিখোঁজের খবর পাওয়ার সাথে সাথে ফায়ার সার্ভিসের ডুবুরি টিম ঘটনাস্থলে পৌছে। তবে তখন সমুদ্র বেশি উত্তাল থাকায় উদ্ধার কাজে কিছুটা বেগ পেতে হয়। বিকালে ভাটা শুরু হওয়ার পর থেকে এখনো পর্যন্ত ডুবুরিরা আসিফকে উদ্ধারের চেষ্টা চালিয়ে যাচ্ছেন বলে ফায়ার সার্ভিসের এ কর্মকর্তা।  

এবিএন/রাজীব সেন প্রিন্স/জসিম/রাজ্জাক

এই বিভাগের আরো সংবাদ