সোনাগাজীতে নিখোঁজ কিশোরের ঝুলন্ত লাশ উদ্ধার

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৭:৫৯

সোনাগাজী উপজেলার সদর ইউপির চর খোন্দকার গ্রামের জেলে পাড়া থেকে নিখোঁজের চারদিন পর ইমাম হোসেন শাকিল (১৬) নামে এক কিশোরের অধর্ গলিত মৃতদেহ গাছের সাথে ঝুলন্ত অবস্থায় উদ্ধার করেছে পুলিশ।

গতকাল সোমবার (১০ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় পুলিশ স্থানীয় এলাকাবাসীর কাছ থেকে খবর পেয়ে চট্টু মহাজনের বাড়ীর পিছন থেকে মৃত দেহটি উদ্ধার করে ।নিহত শাকিল ওই গ্রামের সৈয়দ বলি বাড়ীর আবুল কালামের ছেলে।

পারিবারিক সুত্র জানায়, শাকিল গত শুক্রবার সকাল থেকে নিখোঁজ ছিলো।অনেক খোঁজাখুজির পরও তার সন্ধ্যান পাওয়া যায়নি।সোমবার সন্ধ্যায় পঁচা গন্ধ পেয়ে এলাকাবাসী তার মৃতদেহের সন্ধান পায়।

নিহতের বড় ভাই আব্দুস শুক্কুর জানান, পুর্ব শত্রুতার জেরে তাকে প্রতিবেশী ইয়াসিন,সুজন,আফসার গং পরিকল্পিতভাবে হত্যা করে তার মৃতদেহ গাছের সাথে ঝুলিয়ে রাখে।

ইতিপূর্বে সুজনদের সাথে পারিবারিক বিরোধে থানায় মামলা করার কারনে ক্ষিপ্ত হয়ে অভিযুক্তরা একাধীকবার হত্যার হুমকিও দেয়।

স্থানীয় এলাকাবাসী জানিয়েছে,নিহত শাকিলের পরিবারের সাথে প্রতিবেশী সুজনদের বিরোধ রয়েছে।গত মাসে তারা শাকিলের মাকে মারধর করলে থানায় মামলা হলে পুলিশ তাদের গ্রেফতার করে। পরে তারা আদালত থেকে জামিন লাভ করে।এলাকাবাসী আরো জানান,বিষয়টি সামাজিকভাবে গত কিছুদিন পূর্বে সমাধান করা হয়েছে।

এদিকে শাকিল নিখোঁজ ছিলো পরিবার দাবী করলেও তারা থানায় কোন অভিযোগ করেনি। এমনকি নিখোঁজের বিষয়টি এলাকায় তেমন জানাজানি হয়নি।

শাকিল নিহতের ঘটনায় তার ভাইয়ের অভিযোগের বিষয়ে জানতে অভিযুক্ত সুজন সহ অপরাপরদের ঘরে গেলেও তাদের কাউকে পাওয়া যায়নি।

সোনাগাজী মডেল থানার পরিদর্শক মোয়াজ্জেম হোসেন জানান,প্রাথমিকভাবে ধারনা করা হচ্ছে গাছের অনেক উপরে  গলায় ফাঁস লাগিয়ে আত্মহত্যা করছে। তবে ময়না তদন্তের পর কিভাবে নিহত হয়েছে তার সঠিক কারন জানা যাবে। মৃতদেহ ময়না তদন্তের জন্য ফেনী আধুনিক সদর হাসপাতালের মর্গে প্রেরণ করা হয়েছে।

 

এবিএন/আবুল হোসেন রিপন/জসিম/তোহা

এই বিভাগের আরো সংবাদ