সিরাজগঞ্জে ছাত্রী নিপীড়নের অভিযোগে ডাক্তার কারাগারে

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১১ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৭:৩১

সিরাজগঞ্জে বেসরকারি নর্থ বেঙ্গল মেডিকেল কলেজের এক নেপালী শিক্ষার্থীকে যৌন নিপীড়নের অভিযোগে ডাক্তার তুহিনকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

 গতকাল সোমবার গভীর রাতে শহরের ধানবান্ধি মহল্লার নিজ বাসা থেকে তাকে গ্রেফতার করা হয়। তিনি ওই মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের ফরেনসিক বিভাগের প্রভাষক। ওই শিক্ষার্থী নেপালের নাগরিক এবং ওই কলেজের চতুর্থ বর্ষের ছাত্রী।

 সিরাজগঞ্জ সদর থানার ওসি (তদন্ত) রফিকুল ইসলাম জানান, লেখাপড়ার সুবাদে ডা. তুহিন প্রেমের সম্পর্ক গড়ে তোলেন তার সঙ্গে। একপর্যায়ে বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে তাকে যৌন নির্যাতন করা হয়।

তাকে ওই নেপালী ছাত্রী বিয়ের জন্য চাপ দিলে ডাক্তার তুহিন অস্বীকার করেন। এ নিয়ে গত শুক্রবার দুপুরে দুইজনের মধ্যে কথা কাটাকাটি হয়।

এ ঘটনার পর রোববার রাতে আবারও ওই ছাত্রী ডা. তুহিনের বাড়ি গিয়ে বিয়ের জন্য চাপ দেয়। ওইদিনই ভুক্তভোগী ছাত্রী বিষয়টি কলেজের অধ্যক্ষকে জানান এবং সিরাজগঞ্জ সদর থানার ওসি বরাবর ওই ডাক্তারের বিরুদ্ধে লিখিত অভিযোগ দায়ের করেন।

আজ মঙ্গলবার দুপুরে তাকে জুডিশিয়াল আদালতের হাজির করা হলে বিজ্ঞ আদালত কারাগারে পাঠানোর নির্দেশ দেন।

এ মামলার তদন্তকারী অফিসার ওসি (অপারেশন) নুরুল ইসলাম জানান, আদালতে ওই ডাক্তারের বিরুদ্ধে ৭ দিনের রিমান্ডের আবেদন করা হয়েছে।

 বিজ্ঞ আদালত রিমান্ড শুনানির দিন ধার্য করেছেন (১২ সেপ্টেম্বর) আগামীকাল বুধবার। এদিকে এ ঘটনা নিয়ে নর্থ বেঙ্গল মেডিকেল কলেজ হাসপাতাল পাড়ায় শিক্ষক ও শিক্ষার্থীদের মধ্যে তোলপাড় সৃষ্টি হয়েছে।

 

এবিএন/এস.এম তফিজ উদ্দিন/জসিম/তোহা

এই বিভাগের আরো সংবাদ