গোবিন্দগঞ্জে প্রতিপক্ষের বাড়ীতে হামলা, ভাংচুর: আহত ৪

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১০ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৮:১৮

গাইবান্ধার গোবিন্দগঞ্জে তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে প্রতিপক্ষরা বসতবাড়ীতে হামলা ভাংচুর, লুটপাট, শ্লীলতাহানী মারপিটে গর্ভপাত সহ আহত-৪ জন, আদালতে মামলা।
মামলা সূত্রে জানা গেছে, গত ২২ আগষ্ট ঈদুল আযহার দিন উপজেলার কাটাবাড়ী ইউপির বিশুলিয়া গ্রামের মমিনুল ইসলামের পুত্র ফেরদাউস হোসেন (১৩) ঈদের আনন্দে রাস্তার পার্শ্বে ভিডিও মোবাইল দ্বারা সেলফি (ছবি) তুলতে ছিল।

সেলফি তুলতে রাস্তা দিয়ে হেঁটে যাওয়া পার্শ্বের বাড়ীর হাবু মিয়ার মেয়ের ছবি উঠার সন্দেহ করে। সে বাড়ীতে গিয়ে সেই ছবি তোলার কথা পরিবারকে জানালে তার বাবা হাবু মিয়া ক্ষিপ্ত হয়ে দেশীয় অস্ত্র সহ ৭/৮ জন যুবককে সঙ্গে নিয়ে মমিনুল ও তার শশুরবাড়ীতে অর্তকিত হামলা করে বাড়ীর দরজা, জ্বানালা, আসবাবপত্র ভাংচুরসহ মহিলাদের ও অন্য সদস্যদের মার ধর করে হত্যার হুমকি দিয়ে ঘটনাস্থল ত্যাগ করে।

তাদের মার ধরে মমিনুলের স্ত্রী ফিরোজা বেগম (৩৫) , মমিনুলের শ্যালক ফিরাজুল ইসলাম (৩৩), ফিরোজুলের স্ত্রী শাপলা বেগম (৩০) ও মৃত মংলা ছেলে আনছার আলী (৩৬) গুরুত্বর আহত হয়।

স্থানীয় লোকজন আহতদের উদ্ধার করে প্রথমে স্থানীয় বাগদা বাজার গ্রাম্য ডাক্তার তোফাজ্জল হোসেন নিকট ও পরে গোবিন্দগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য কম্পেøক্সে ভর্তি করে। তিন মাসের অন্তঃসত্তা আহত ফিরোজা বেগম জানান, মার ধরের আঘাতে তার গর্ভের সন্তান নষ্ট হয়েছে। স্থানীয় লোকজন জানান, হাবু মিয়ারা প্রভাবশালী হওয়ায় তারা তুচ্ছ ঘটনাকে কেন্দ্র করে এ ঘটনাটি ঘটিয়েছে।

এ বিষয়ে মমিনুল ইসলাম গোবিন্দগঞ্জ থানায় মামলা করতে গেলে থানা কর্তৃপক্ষ মামলা গ্রহন না করায় পরবর্তীতে গোবিন্দগঞ্জ আদলতে হাবু মিয়াসহ ৭ জনের বিরুদ্ধে সি আর নং ৩০২/১৮ মামলা দায়ের করে।

 

এবিএন/তাজুল ইসলাম প্রধান/জসিম/তোহা

এই বিভাগের আরো সংবাদ