চকরিয়ায় মাঠে গড়ালো বঙ্গবন্ধু জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্ণামেন্ট

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ০৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৯:৩৪

কক্সবাজারের চকরিয়ায় ব্যাপক উৎসাহ-উদ্দীপনার মধ্য দিয়ে শুরু হয়েছে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান জাতীয় গোল্ডকাপ ফুটবল টুর্ণামেন্ট অনুর্ধ্ব-১৭।  পৌরসভাসহ ১৯টি ইউনিয়ন নিয়ে নকআউট পদ্ধতির এই টুর্ণামেন্ট শুরু হয়।  আজ মঙ্গলবার (৪ সেপ্টেম্বর) বিকালে চকরিয়া পৌরসভা মগবাজারস্থ শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়ামে ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়ন পরিষদ ও ডুলাহাজার ইউনিয়ন পরিষদের খেলার মধ্য নিয়ে টুর্ণামেন্টের উদ্বোধন হয়।  প্রথম খেলায় ফাঁসিয়াখালী ১-৪ গোলে হারিয়ে দ্বিতীয় পর্বে উত্তীর্ণ হয় ডুলাহাজারা ইউনিয়ন পরিষদ।

টুর্ণামেন্টের প্রথম খেলায় উভয়দল প্রথম পর্বে হাড্ডাহাড্ডি লড়াই করেন।  এ পর্বে ১-০ গোলে এগিয়ে থাকে ফাঁসিয়াখালী ইউনিয়ন পরিষদ।  দ্বিতীয়ার্ধের খেলায় ফাঁসিয়াখালীর খেলোয়াড়দের শরীরিক দুর্বলতার সুযোগ কাজে লাগিয়ে একটি টাইব্রেকারসহ পরপর ৪টি গোল দিয়ে দ্বিতীয় পর্বে পৌঁছে যায় ডুলাহাজারা ইউনিয়ন পরিষদ।  টুর্ণামেন্ট শুরুর আগে জাতীয় সংগীত পরিবেশনের পর প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত থেকে টুর্ণামেন্টের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন উপজেলা পরিষদের চেয়ারম্যান আলহাজ্ব জাফর আলম।

চকরিয়া উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ও উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সভাপতি  নুরুদ্দীন মুহাম্মদ শিবলী নোমানের সভাপতিত্বে উদ্বোধনী অনুষ্টানে শুভেচ্ছা বক্তব্য রাখেন- চকরিয়া পৌরসভার মেয়র মো.আলমগীর চৌধুরী, সহকারী কমিশনার (ভুমি) খোন্দকার মো.ইখতিয়ার উদ্দিন আরাফাত, চকরিয়া সার্কেলের সিনিয়র সহকারী পুলিশ সুপার (এএসপি) কাজী মতিউল ইসলাম, চকরিয়া থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো.বখতিয়ার উদ্দিন চৌধুরী, উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার সাধারণ সম্পাদক আলহাজ্ব ফজলুল করিম সাঈদী, চকরিয়া প্রেসক্লাবের সভাপতি এম জাহেদ চৌধুরী, রাজনীতিবিদ জামাল উদ্দিন জয়নাল, জেলা ফুটবল এসোসিয়েশনের নির্বাহী সদস্য  ও উপজেলা ক্রীড়া সংস্থার কোষাধ্যক্ষ এএসএম আলমগীর হোছাইন, চিরিংগা ইউপি চেয়ারম্যান আলহাজ্ব জসীম উদ্দিন, সাহারবিল ইউপি চেয়ারম্যান মহসিন বাবুল, ডুলাহাজারা ইউপি চেয়ারম্যান নুরুল আমিন, কোণাখালী ইউপি চেয়ারম্যান দিদারুল হক সিকদার, বিএমচর ইউপি চেয়ারম্যান এসএম জাহাঙ্গীর আলম প্রমুখ।

কমিউনিটি সেন্টার মাঠটি শেখ রাসেল মিনি স্টেডিয়াম হিসেবে নির্মাণের প্রক্রিয়াধীন থাকায় পানি ও কাদায় একাকার ছিলো পুরো মাঠ। তা সত্বেও জাতীয় পর্যায়ে খেলার আগ্রহ থাকায় দু’দলের খেলোয়াড়রা নিজেদের নৈপূণ্য প্রদর্শনে কমতি ছিলোনা। এতে আনন্দ উপভোগ করে মাঠের চর্তুপাশে উপস্থিত শতশত ক্রীড়ামোদি জনতা।  টুর্ণামেন্টর প্রথম খেলায় ডুলাহাজার টিমের সায়েম ম্যান অব দ্যা ম্যাচ নির্বাচিত হয়ে এক হাজার টাকা মূল্যমানের প্রাইজবন্ড পুরস্কার পান।
 
এবিএন/মুকুল কান্তি দাশ/জসিম/রাজ্জাক

এই বিভাগের আরো সংবাদ