যুবলীগ নেতার বাড়ীতে হামলা

সোনাগাজীতে ৩৪ বিএনপি নেতাকর্মীর নামে মামলা

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ০৪ সেপ্টেম্বর ২০১৮, ১৬:৩৬

সোনাগাজী উপজেলার চরদরবেশ ইউনিয়নে ইমাম হোসেন নামে যুবলীগ নেতার বাড়ীতে হামলা করে তাকে আহত করার অভিযোগ এনে ৯ জনের নাম উল্লেখ ও ২৫ জনকে অজ্ঞাত করে মামলা দায়ের করেছে ওই যুবলীগ নেতা।এ মামলায় সবাই বিএনপি,যুবদল,ছাত্রদল ও স্বেচ্চাসেবক দলের নেতাকর্মী।

সোনাগাজী উপজেলা বিএনপির সাধারন সম্পাদক সাবেক পৌর মেয়র জামাল উদ্দিন সেন্টু বিএনপি ও এর অঙ্গসংগঠনের নেতাকর্মীদের মিথ্যা রাজনৈতিক উদ্দেশ্যপ্রনোদিত মামলায় আসামী করায় তীব্র নিন্দা ও ক্ষোভ জানিয়েছে।

মামলার আসামীরা হলেন জেলা স্বেচ্চাসেবক দলের যুগ্ন আহবায়ক মোজাম্মেল হক রাসেদ মেম্বার,চরদরবেশ ইউনিয়ন বিএনপির সাধারন সম্পাদক হুমায়ুন কবির মাসুদ,উপজেলা বিএনপির সাবেক সাংগঠনিক সম্পাদক ও চরদরবেশ ইউপির সাবেক চেয়ারম্যান আবুল কালাম,যুবদল নেতা কামরুল,জাহাঙ্গির,ছাত্রদল নেতা নিশান,আনোয়ার হোসেন শিফন,নেজাম উদ্দিন ও ফয়েজ উল্যাহ।

সেনেরখিল গ্রামের আবু ইউছুপের ছেলে যুবলীগ নেতা ইমাম হোসেন মামলায় অভিযোগ করেন আসামীরা রাজনেতিক কারনে তাকে হত্যার উদ্দেশ্যে গত রবিবার রাতে তার বাড়ীতে হামলা চালায়।ঘটনার সময় তারা ককটেল নিক্ষেপ করে তার বসতঘর ভাংচুর করে ও তাকে পিটিয়ে আহত করে।খবর পেয়ে এলাকাবাসী বের হলে আসামীরা কয়েকটি দেশীয় তৈরী অস্ত্র(কিরিজ) ও ককটেল রেখে পালিয়ে গেলে পুলিশ এসে সেগুলো উদ্ধার করে।

অভিযোগের বিষয়ে মামলার আসামী সাবেক চেয়ারম্যান আবুল কালাম ও জেলা স্বেচ্চাসেবক দলের নেতা রাশেদ মেম্বার বলে,বাদীর অভিযোগ সম্পুর্ন মিথ্যা,এলাকায় এ ধরনের কোন ঘটনা ঘটেনি।নির্বাচন কে সামনে রেখে বিএনপি নেতাকর্মীদের মাঠ ছাড়া করার জন্য তারা নিজেরাই ককটেল ফাটিয়ে ও ভাংচুর চালিয়ে মিথ্যা মামলা দায়ের করেছে।

সোনাগাজী মডেল থানার পরিদর্শক মোয়াজ্জেম হোসেন বলেন,বাদীর অভিযোগ পেয়ে ঘটনাটি তদন্ত করে সত্যতা পাওয়ার পর অভিযোগটি এফ.আই.আর হিসেবে গ্রহন করা হয়েছে।

এবিএন/ আবুল হোসেন রিপন/জসিম/নির্ঝর

এই বিভাগের আরো সংবাদ