সুনামগঞ্জে অবৈধ স্থাপনা উচ্ছেদ না করায় সওজের নির্বাহী প্রকৌশলীর অপসারন দাবি

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ০৪ মার্চ ২০২১, ১৫:১৯

সুনামগঞ্জ-সিলেট আঞ্চলিক সড়কের ছাতক উপজেলার গোবিন্দগঞ্জে বীর মুক্তিযোদ্ধা চত্ত্বর এর আশপাশে সড়ক ও জনপথ বিভাগের জমিতে অবৈধভাবে গড়ে উঠা স্থাপনা উচ্ছেদে পক্ষপাতিত্বের অভিযোগ এনে নির্বাহী প্রকৌশলী জহিরুল ইসলামের অপসারন দাবী করে সংবাদ সম্মেলন অনুষ্ঠিত হয়েছে ।

সুনামগঞ্জ সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে স্থাপনা উচ্ছেদ না করে ভাসমান ও ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের উচ্ছেদ করার অভিযোগ করেছেন সুনামগঞ্জ-সিলেট সহাসড়ক যাত্রী স্বার্থ সংরক্ষণ কমিটি ও জেলা সিএনজি চালিত অটোরিকশা শ্রমিক ইউনিয়ন।
বৃহস্পতিবার দুপুরে সুনামগঞ্জ শহরের শহীদ বীর মুক্তিযোদ্ধা জগৎজ্যোতি পাবলিক লাইব্রেরী মিলনায়তনে সংবাদ সম্মেলন করে সুনামগঞ্জ সওজের নির্বাহী প্রকৌশলীর বিরুদ্ধে এসব অভিযোগ করেন তাঁরা।

সংবাদ সম্মেলনে অভিযোগ করে বলা হয়েছে, সুনামগঞ্জ-সিলেট আঞ্চলিক সড়কের গোবিন্দগঞ্জ বীর মুক্তিযোদ্ধা চত্ত্বরের আশপাশে সওজের অন্তত শত কোটি টাকার জমিতে অনেক স্থায়ী স্থাপনা ও ব্যবসা প্রতিষ্ঠান রয়েছে। স্থাপনা নির্মাণকারীদের কাছ থেকে নিয়মিত মাসোয়ারা নিচ্ছে সওজের লোকজন। দীর্ঘদিন ধরে এসব স্থাপনা উচ্ছেদে সওজ কর্তৃপক্ষ কোন পদক্ষেপ নিচ্ছে না। বার বার ভাসমান ও ক্ষুদ্র ব্যবসায়ীদের উচ্ছেদের নামে ক্ষতিগ্রস্ত করা হচ্ছে। প্রকৃত স্থাপনা উচ্ছেদে সওজ কর্তৃপক্ষ রহস্যজনক ভূমিকা পালন করছে। এতে গোবিন্দগঞ্জ পয়েন্টে যানজট লেগেই থাকছে।

সংবাদ সম্মেলনে সুনামগঞ্জ সড়ক ও জনপথ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলীর অপসারণ ও সরকারি আদেশ প্রতিপালন না করায় তাঁর বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা গ্রহণের জন্য সরকারের প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার নিকট দাবি জানানো হয়।

সংবাদ সম্মেলনে লিখিত বক্তব্য পাঠ করেন সুনামগঞ্জ-সিলেট সহাসড়ক যাত্রী স্বার্থ সংরক্ষণ কমিটির আহ্বায়ক ও ছাতক উপজেলা পরিষদের সাবেক চেয়ারম্যান অলিউর রহমান চৌধুরী বকুল, জেলা সিএনজি চালিক অটোরিকশা শ্রমিক ইউনিয়নের সভাপতি আপ্তাব উদ্দিন ও সাধারণ সম্পাদক মো. জমসেদ আলী।

 

এবিএন/অরুন চক্রবর্তী/জসিম/তোহা

এই বিভাগের আরো সংবাদ