পটিয়ায় জেলা প্রশাসকের নির্দেশে উচ্ছেদ অভিযান

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ০৩ মার্চ ২০২১, ১৫:১৫

চট্টগ্রাম জেলা প্রশাসকের নির্দেশে পটিয়ায় ম্যাজিস্ট্রেট কলোনীর একটি বাসার মালামাল উচ্ছেদ করা হয়েছে।

সহকারী কমিশনার (ভুমি) পটিয়া অফিসের অভ্যন্তরে থাকা স্টাফ কোয়ার্টার অবৈধ দখল করলেও মঙ্গলবার জেলা প্রশাসকের নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট আশরাফুল ইসলামের নেতৃত্বে একটি অভিযান পরিচালনা করেন।

এ সময় যুগ্ম জেলা জজ আদালত পটিয়ার পেশকার কবির আহমদের পরিবারের মালামাল বের করে নিরাপদে সরিয়ে রাখা হয়।

উচ্ছেদের পর সহকারী কমিশনার ভুমি অফিসের কাগজপত্র রেখে তা রেকর্ড রুম হিসেবে সাইনবোর্ড দেওয়া হয়। একঘন্টা পর জেলা প্রশাসকের পুনঃনির্দেশে উচ্ছেদ অভিযান বন্ধ করা হয়।   
 
জানা গেছে, উপজেলা ভুমি অফিসের অভ্যন্তরে থাকা পরিত্যক্ত স্টাফ কোয়ার্টারে দীর্ঘদিন ধরে কিছু পরিবার বসবাস করে আসছিল। পটিয়া সহকারী কমিশনার (ভুমি) ইনামুল হাসান অবৈধভাবে বসবাস করা পরিবারকে উচ্ছেদ করতে প্রক্রিয়া শুরু করেন। পরিত্যক্ত কোর্য়াটার থেকে ইতোমধ্যে নোটিশ দিয়ে ৪ পরিবারকে উচ্ছেদ করা হয়। পেশকার কবির আহমদ স্বেচ্ছায় সরে না যাওয়ায় জেলা প্রশাসকের নির্দেশে নির্বাহী ম্যাজিস্ট্রেট অভিযান চালিয়ে উচ্ছেদ করে। অভিযান চলা অবস্থায় পুনরায় জেলা প্রশাসকের নির্দেশক্রমে অভিযান স্থগিত রাখা হয়।
 
পটিয়া সহকারী কমিশনার (ভুমি) ইনামুল হাসান জানিয়েছেন, কোয়ার্টার দখল করে কিছু পরিবার এতদিন অবৈধভাবে বসবাস করে আসছিলেন। কোয়ার্টার থেকে স্বেচ্ছায় সরে না যাওয়ায় জেলা প্রশাসক স্যারের নির্দেশে পেশকারের বাসার মালামাল নির্বাহী ম্যাজিষ্ট্রেটের উপস্থিতিতে উচ্ছেদ করা হয়।

তবে পটিয়া যুগ্ম জেলা আদালতের পেশকার কবির আহমদ বলেছেন, তিনি তৎকালীন চীফ জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট মুন্সি মশিউর রহমানের নির্দেশক্রমে গত ৩ বছর ধরে ম্যাজিস্ট্রেট কলোনীর বাসায় থাকছেন। তাকে কোন ধরনের নোটিশ না দিয়ে উচ্ছেদ করা হয়েছে। এজন্য তিনি আইনানুগ ব্যবস্থা নিবেন।

এবিএন/সেলিম চৌধুরী/গালিব/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ