সোনাগাজীতে অবৈধ বালু মহালে ভ্রাম্যমাণ আদালতের অভিযান

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২৮ আগস্ট ২০১৮, ১৭:৪৭

ফেনীর সোনাগাজী উপজেলার চরদরবেশ ইউপির ছোট ফেনী নদীতে নির্মাণাধীন সাহেবের ঘাট ব্রীজ এলাকায় আজ মঙ্গলবার দুপুরে অবৈধ বালু উত্তোলন কারিদের বিরুদ্ধে অভিযান চালিয়েছে ভ্রাম্যমাণ আদালত।

সোনাগাজী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা ভ্রাম্যমাণ আদালতের ম্যাজিস্ট্রেট মুহাম্মদ সোহেল পারভেজ জানিয়েছে,অভিযানের সময় ঘটনাস্থলে বালু উত্তোলনকারী কাউকে পাওয়া যায়নি।বালু উত্তোলনের মেশিনটি সরানোর ব্যাবস্থা চলছে।

তিনি আরো জানিয়েছে, বালু উত্তোলনের কারনে নির্মাণাধীন ব্রীজ ধ্বসে যাবে এমন আশংকা প্রকাশ করে নোয়াখালীর সড়ক ও জনপদ বিভাগের নির্বাহী প্রকৌশলী বিনয় কুমার পাল ফেনী জেলা প্রশাসক বরাবর অবৈধ বালু উত্তোলন কারীদের বিরুদ্ধে ব্যাবস্থা নিতে লিখিত আবেদন করে।

অভিযানের সময় উপজেলা সহকারী কমিশনার(ভুমি) শাহরিন ফেরদৌসি উপস্থিত ছিলেন। অভিযানের টের পেয়ে বালু উত্তোলনকারীরা পালিয়ে যাওয়ায় কাউকে আটক করা যায়নি।তবে অবৈধভাবে উত্তোলনকৃত বালু জব্দ না করায় অভিযানের মুল উদ্দেশ্য নিয়ে জনসাধারনের মনে অনেক প্রশ্ন ঘুরপাক খাচ্ছে।

স্থানীয়রা জানিয়েছে সরকার দলের নাম ভাঙ্গিয়ে একটি প্রভাবশালী চক্র গত এক বছর যাবৎ সাহেবের ঘাট ব্রীজ সংলগ্ন এলাকা থেকে সংািশ্লষ্ট কর্তৃপক্ষের অনুমতি ছাড়া বালু উত্তোলন করেছে যার কারনে নির্মানাধীন ব্রীজের এপ্রোচ মারাত্মকভাবে ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

ইতিমধ্যে ব্রীজের পশ্চিম দিকের প্রথম স্প্যামটির পাশের মাটি সরে গিয়ে ঝুকিপুর্ন অবস্থায় রয়েছে ও পূর্ব পাশের সিসি ব্লকের অনেকাংশ নদী গর্ভে বিলীন হয়েছে।তারা আরো জানিয়েছে,উভয় পাশে অবৈধ বালু উত্তোলনের সাথে প্রভাবশালী মহলের সাথে ব্রীজ নির্মানের ঠিকাদারী প্রতিষ্ঠানের কয়েকজন কর্মকর্তা জড়িত রয়েছে। তারা গত এক বছরে অন্তত কয়েক কোটি টাকার বালু উত্তোলন করেছে।

 

এবিএন/আবুল হোসেন রিপন/জসিম/তোহা

এই বিভাগের আরো সংবাদ