সিরাজগঞ্জে ফেসবুকে বিভ্রান্তিকারীকে গণধোলাই

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২৬ আগস্ট ২০১৮, ১৯:২৩

সিরাজগঞ্জ, ২৬ আগস্ট, এবিনিউজ : সিরাজগঞ্জের রায়গঞ্জে ভূয়া ফেসবুক আইডিতে উপজেলা আওয়ামী লীগের কতিপয় শীর্ষ নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে কটুক্তিমূলক পোস্ট দাতা শামীম আজাদকে আটক করে গণধোলাই দিয়েছে স্থানীয় এলাকাবাসী।

জানা গেছে, রায়গঞ্জ উপজেলার ঝাপড়া পালপাড়া গ্রামের ওয়ারেছ আলীর ছেলে ও ইউনিয়ন স্বেচ্ছাসেবক লীগের বহিঃষ্কৃত সহ-সভাপতি ও ইয়াবা বিক্রেতা শামীম আজাদ (৩৩) দীর্ঘদিন ধরে ৩টি ভূয়া ফেসবুক আইডি ব্যবহার করে আসছিল।

শামীম আজাদ তার ব্যবহৃত শামীম আজাদ, বাকীবিল্লাহ আহমেদ ও বঙ্গবন্ধু পরিষদ নামক ৩টি ভূয়া আইডিতে উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক খন্দকার শরিফ উল আলম শরিফসহ নেতাকর্মীদের বিরুদ্ধে নানামূখী বিভ্রান্তিমূলক পোস্ট দিয়ে উপজেলা আওয়ামী লীগে তোলপাড় সৃষ্টি করে।

সর্বশেষ গত ১৯ আগস্ট বাকীবিল্লাহ আহমেদ আইডি হতে ৬নং ধানগড়া ইউনিয়ন পরিষদ চেয়ারম্যান মীর ওবায়দুল ইসলাম মাসুমের বিরুদ্ধে ভিজিএফ এর চাল চোর বলে আখ্যায়িত করে পোস্ট প্রদান করলে উপজেলা আওয়ামী লীগসহ সাধারণ জনগনের মধ্যে তোলপাড় সৃষ্টি হয়। এক পর্যায়ে পোস্টদাতা শামীম আজাদকে ভূয়া পোস্টদাতা হিসেবে সনাক্ত করে আজ ২৬ আগস্ট (রবিবার) বিকেলে আওয়ামী লীগের বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠনের নেতাকর্মীরা তাকে তার বাড়ি থেকে আটক করে গণধোলাই দেয় এবং ওই ইউনিয়ন পরিষদে নিয়ে এসে স্থানীয় আওয়ামী লীগের নেতাদের কাছে সোপর্দ্দ করে।

এ ব্যাপারে তাৎক্ষণিক পরিষদ চত্বরে এক শালিসি বৈঠকে পোস্টদাতা শামীম আজাদ সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান ফিরোজ উদ্দিন খান উষ্কানিদাতা বলে জন সন্মুখে স্বীকার করে। কিন্তু সাবেক ইউপি চেয়ারম্যান ও উপজেলা আওয়ামী লীগের ক্রীড়া বিষয়ক সম্পাদক ফিরোজ উদ্দিন খান উপস্থিত ৩ শতাধিক নেতাকর্মীদের মাঝে বক্তব্য প্রদানকালে তিনি তা অস্বীকার করেন।

উপজেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি ছাইদুল ইসলাম চানের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠিত শালিসি বৈঠকে অন্যান্যদের মধ্যে উপস্থিত ছিলেন উপজেলা আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক খন্দকার শরিফ উল আলম শরিফ, সাংস্কৃতিক বিষয়ক সম্পাদক আব্দুল হালিম খান দুলাল, ধানগড়া ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সভাপতি গাজী আব্দুল হামিদ সরকার, ধানগড়া ইউপি চেয়ারম্যান মীর ওবায়দুল ইসলাম মাসুম, কৃষক লীগের সাধারণ সম্পাদক রেজাউল করিম বাচ্চু, ছাত্রলীগের সাধারণ সম্পাদক জাহাঙ্গীর আলম, দেলোয়ার হোসেনসহ আওয়ামী লীগের বিভিন্ন অঙ্গ সংগঠনের নেতৃবৃন্দ।

উল্লেখ্য, পোস্টদাতা শামীম আজাদের নামে সংশ্লিষ্ট থানায় একাধিক মাদক মামলা রয়েছে। এ কারণে তাকে দল থেকে বহিঃষ্কার করা হয়। রায়গঞ্জ থানার ওসি পঞ্চনন্দন সরকার বলেন, এ বিষয়টি এখনও শুনেনি। তবে ঘটনাটি খতিয়ে দেখবেন বলে তিনি উল্লেখ করেন।

এবিএন/তফিজ উদ্দিন/জসিম/এমসি

এই বিভাগের আরো সংবাদ