শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌরুটে ফেরি চলাচল ব্যাহত

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২৬ আগস্ট ২০১৮, ১০:৩৫ | আপডেট : ২৬ আগস্ট ২০১৮, ১১:২০

মুন্সীগঞ্জ, ২৬ আগস্ট, এবিনিউজ : মুন্সীগঞ্জের শিমুলিয়া-কাঁঠালবাড়ি নৌরুটে নাব্যতা সংকটে ফেরি চলাচল ব্যাহত হচ্ছে। ঘাট এলাকায় ৫ শতাধিক গাড়ি পারাপারের অপেক্ষায় আছে। কে-টাইপ ও মাঝারি ধরনের ১২টি ফেরি চলাচল করছে। এতে হালকা যানবাহন পারাপার করা হচ্ছে। তবে বন্ধ হয়েছে রো রো ফেরি। দুর্ঘটনা এড়ানোর জন্য রাতে ফেরি চলাচল পুরোপুরি বন্ধ থাকে।

আজ রবিবার সকাল থেকেই ছোট ও হালকা গাড়ি পারাপার করছে ফেরিগুলো। ঘাটে পারের অপেক্ষায় থাকা বেশিরভাগ গাড়িই দূরপাল্লার যাত্রীবাহী বাস ও প্রাইভেটকার। গেল কয়েক দিন ধরেই নৌরুটে ফেরি চলাচল ব্যাহত হচ্ছে। 

গতকাল শনিবার রাত ১১টা থেকে সরু চ্যানেলে দুর্ঘটনা এড়ানোর জন্য ফেরি চলাচল বন্ধ রাখা হয়।

বাংলাদেশ অভ্যন্তরীণ নৌ চলাচল করপোরেশনের (বিআইডব্লিউটিসি) শিমুলিয়া ঘাটের উপমহাব্যবস্থাপক (বাণিজ্য) শাহ মো. খালিদ নিয়াজ  জানান, গতকাল রাত ১১টা থেকে ফেরি চলাচল বন্ধ ছিল। সরু চ্যানেলে দুর্ঘটনা এড়ানোর জন্য ফেরি চলাচল বন্ধ রাখা হয়। সারা রাত ফেরি চলাচল না করায় ঘাট এলাকায় পারাপারের জন্য গাড়ির সংখ্যা বাড়তে থাকে। সকাল থেকে ১২টি ফেরি চলাচল করছে ধারণক্ষমতার তুলনায় অর্ধেক গাড়ি নিয়ে। নাব্যতা সংকটের কারণে রো রো ফেরিগুলো বন্ধ আছে। ঘাট এলাকায় ৫ শতাধিক গাড়ি পারের অপেক্ষায় আছে। এ ছাড়া পণ্যবাহী ট্রাকগুলো ঘাটে এসে ফিরে যাচ্ছে। গভীর ড্রেজিং করে নাব্যতা সংকট নিরসন না হলে সব ফেরি চালানো যাবে না বলে জানান তিনি।

নাব্যতা সংকটে ঈদের আগে টানা ৯ দিন ফেরি সার্ভিস ব্যাহত হওয়ার পর ঈদের দুই দিন আগে সার্ভিসে কিছুটা সচলতা এসেছেলি। এর পর ঈদের একদিন পর শুক্রবার আবার নাব্যতা সংকটে রো রো এবং ডাম্প ফেরি চলাচল বন্ধ হয়ে যায়।

এবিএন/সাদিক/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ