সিরাজগঞ্জে জলাবদ্ধতায় ধান কাটতে পারছেনা কৃষকরা

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১৫ মে ২০১৮, ১৮:২৭

সিরাজগঞ্জ, ১৫ মে, এবিনিউজ: সিরাজগঞ্জের তাড়াশ উপজেলার ৪টি ইউনিয়নের জলাবদ্ধতার কারণে প্রায় ১২ হাজার হেক্টর জমির বোরো ধান এখন পানির নিচে। সেইসাথে জোঁক ও কামলার দাম অস্বাভাবিক থাকায় কৃষকরা ধান কেটে ঘড়ে তুলতে পারছেনা। এতে কৃষকরা হতাশাগ্রস্থ হয়েে পড়েছেন।

তাড়াশ উপজেলা কৃষি অফিসার কৃষিবিদ সাইফুল ইসলাম বলেন, চলনবিল ঘেষা এ উপজেলার ৮টি ইউনিয়নে এবার ২১ হাজার হেক্টর জমিতে বোরো ধান চাষাবাদের লক্ষমাত্রা নির্ধারণ করা হলেও কৃষকরা প্রায় ২২ হাজার হেক্ষটর জমিতে বোরো ধান চাষাবাদ করেছে। এর মধ্যে মাঘুরা বিনদ, নওগাঁ, মাধাইনগর ও সঘুনা ইউনিয়নের প্রায় ১২ হাজার হেক্টর জমির বোরো ধান এখন পানির নিচে।

এসব ইউনিয়েনের বিভিন্ন স্থানে পুকুর, ব্রীজ কালভার্ট, ও বাড়ীঘর নির্মাণ করায় পানি নিষ্কাষন বন্ধ হয়ে গেছে। এতে জলবদ্ধতার সৃষ্টি হওয়াায় পানিতে অস্বাভাবিক জোঁক ও কামলার দাম বৃদ্ধি পাওয়ায় এই পরিস্থিতির সৃষ্টি হয়েছে। তিনি আরো জানান, ধান কাটা ও মাড়াই কাজে দিনমজুর ৬’শ থেকে সাড়ে ৬’শ টাকা। তাও আবার পাওয়া যাচ্ছে না এবং জোঁকের ভয়ে অনেক দিনমজুর ও ই জলাবদ্ধতার মধ্যে ধান কাটটে সাহস পাচ্ছেনা।

বর্তমানে প্রতি মন ধান ৬৫০ থেকে ৭৫০ টাকায় বিক্রি হচ্ছে। এ বিষয়টি উর্ধতন কর্তৃপক্ষকে অবহিত করা হয়েছে বলে তিনি জানান।

এবিএন/এস.এম তফিজ উদ্দিন/জসিম/তোহা

এই বিভাগের আরো সংবাদ
well-food