আশাশুনিতে ৩ জনকে জখম

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২৪ আগস্ট ২০১৮, ১৯:৫৭

আশাশুনি (সাতক্ষীরা), ২৪ আগস্ট, এবিনিউজ : আশাশুনি উপজেলার বুধহাটা ইউনিয়নের শে^তপুর গ্রামে ঈদের পরের দিন প্রকাশ্য দিবালোকে বাড়িতে ঢুকে সন্ত্রাসী স্টাইলে ৩ জনকে জখম করা হয়েছে। আহতদের সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়েছে।

আহত নজরুল ইসলাম জানান, শে^তপুর গ্রামের বীর মুক্তিযোদ্ধা আ. সাত্তারের পুত্র নজরুল ইসলাম (তিনি) ঢাকায় ব্যবসা করেন। ঈদের ছুটিতে তিনি বাড়িতে এসেছেন। একই গ্রামের আ. গফুর সরদারের পুত্র কুখ্যাত মাদক ব্যবসায়ী অমেদ আলি ও আ. সামাদ এবং তাদের ভাই জহিরুল বিদ্যুৎ সংযোগ নেওয়া নিয়ে তার সাথে অসৌজন্যমূলক আচরণ করেন।

স্থানীয় গণ্যমান্য ব্যক্তিবর্গের উপস্থিতিতে ছাত্রলীগ নেতা জহিরুল চরম আপত্তিকর ও আক্রমণাত্মক হয়ে উঠলে লোকজন তাদেরকে সিরাজুল দর্জির বাড়িতে সরিয়ে নেন। তখন জহিরুল, অমেদ ও সামাদ রড, পাইপ, কোপা নিয়ে সন্ত্রাসী স্টাইলে সিরাজুলের বাড়িতে ঢুকে তাদেরকে নির্মমভাবে মারপিট করেন।

আক্রান্তদের (নজরুল দিং) অবস্থা বেগতিক দেখে হুমকি দিয়ে তারা চলে যায়। স্থানীয়রা নজরুল, রবিউল ও মনিরুলকে উদ্ধার করে সাতক্ষীরা সদর হাসপাতালে ভর্তির ব্যবস্থা করেন।

ইউপি সদস্য রেজওয়ান আলি ও আহতদের পরিবারের সদস্যরা ঘটনার সত্যতা স্বীকার করে জানান, ইয়াবা, ফেন্সিডিল, গাঁজাসহ মাদকদ্রব্যের ব্যবসা ও মাদকের আসর বসিয়ে এলাকাকে অশান্ত ও সমাজকে ধ্বংসের দিকে ঠেলে দেওয়া অমেদ ও সামাদ এলাকার মাদক সম্রাট হিসেবে পরিচিত।

একাধিকবার পুলিশ ও মাদকদ্রব্য নিয়ন্ত্রণ অধিদপ্তরের লোকজন তাকে গ্রেফতার করলেও তাদেরকে মাদকের কারবার প্রতিহত করা যায়নি। বরং মাদকের কারবার ও মাদকের আসর বসিয়ে ব্যবসায়িক রাজত্ব কায়েম করেছেন তারা। তাদের অত্যাচার ও অনাচারে এলাকাবাসী অতিষ্ঠ হয়ে উঠেছে। ঘটনার পরপরই পুলিশ ঘটনাস্থান পরিদর্শন করেছেন।

এ ব্যাপারে মামলা দায়েরের প্রস্তুতি চলছে।

এবিএন/মুজিবুর রহমান/জসিম/এমসি

এই বিভাগের আরো সংবাদ