ঐক্যবদ্ধভাবে সংগঠন কে সুসংহত রাখার আহ্বান যুবলীগের কেন্দ্রীয় নেতা নাজমুল হাসানের

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২৬ জানুয়ারি ২০২১, ২১:০১ | আপডেট : ২৬ জানুয়ারি ২০২১, ২২:৫৯

২০২০ সালের ২৩ নভেম্বর ঢাকায় কংগ্রেস সভার মধ্য দিয়ে কেন্দ্রীয় আওয়ামী যুবলীগের ২০১ সদস্যের পূৃর্ণাঙ্গ কমিটি'র নাম ঘোষনা করা হয়েছিল। স্বাধীনতার পরপরই ১৯৭২ সালের ১১ নভেম্বর যুবকদের সংগঠিত করার লক্ষ্য নিয়ে জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের নির্দেশে যুবলীগ গঠন করেন তার ভাগ্নে মুক্তিযুদ্ধের অন্যতম সংগঠক শেখ ফজলুল হক মনি। ১৯৭৪ সালে যুবলীগের প্রথম কংগ্রেসে তিনিই চেয়ারম্যান নির্বাচিত হন।

গেল বছর সপ্তম কংগ্রেসের মাধ্যমে রাজধানীর বঙ্গবন্ধু এভিনিউতে অবস্থিত আওয়ামী লীগের কেন্দ্রীয় কার্যালয়ে  আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক এবং সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের পূর্ণাঙ্গ কমিটির নামের তালিকা যুবলীগের সভাপতি শেখ ফজলে শামস পরশ ও সাধারণ সম্পাদক মাইনুল হোসেন খান নিখিলের কাছে ঐ সময় হস্তান্তর করেছিলেন।

যুবলীগের ঐ কংগ্রেস সভায়  শীর্ষপদে আসে  যুবলীগের প্রতিষ্ঠাতা চেয়ারম্যান শেখ ফজলুল হক মনির সন্তান শেখ ফজলে শামস পরশ সংগঠনের চেয়ারম্যান হন আর সাধারণ সম্পাদক হিসেবে দায়িত্ব দেওয়া হয় মাইনুল হোসেন খান নিখিলকে। পরিচ্ছন্ন ইমেজের দক্ষ ও অভিজ্ঞ তরুণেরা কেন্দ্রীয় যুবলীগের নেতা নির্বাচিত হয়েছেন।

এমনিই এক তরুণ সমাজ সেবক  মুজিব আদর্শে লালিত যশোর জেলার শার্শা উপজেলার কৃতি সন্তান নাজমুল হাসান যুবলীগের ঐ কেন্দ্রীয় কমিটি'র সদস্য হওয়ায় দলীয় নেতা-কর্মীরা তাকে পুষ্পমাল্য দিয়ে বরণ করে নেন। আজ মঙ্গলবার(২৬ জানুয়ারী) সকালে ঢাকা থেকে নাজমুল হাসান তার জন্মস্থান শার্শায় এসে পৌছলে যুবলীগের নেতা-কর্মী এবং শার্শা মুক্তিযোদ্ধা সংসদ কমান্ড সন্তান এর পক্ষ থেকে তাকে এই ফুলেল শুভেচ্ছা জানানো হয়।

শার্শায় এসে যুবলীগ নেতা নাজমুল হাসান সকাল সাড়ে ৯ টার দিকে শার্শা'র রাজনৈতিক অঙ্গনের পুরোধা,আওয়ামীলীগের বর্ষীয়ান নেতা এবং ৭৫ পরবর্তী সময়ে যশোর জেলা আওয়ামীলীগের অভিভাবক, সাবেক সংসদ সদস্য, মুক্তিযুদ্ধের সংগঠক মরহুম তবিবর রহমান সরদার এর কবরের পাশে যান, সেখানে তিনি দলীয় নেতা-কর্মীদের নিয়ে দোয়া ও শ্রদ্ধা নিবেদন করেন। এরপর তিনি বীরশ্রেষ্ঠ নুর মোহাম্মাদ শেখ এর সমাধী স্থল শার্শা উপজেলার ডিহি ইউনিয়নের কাশীপুর যান,সেখানে তিনি বীরশ্রেষ্ঠ নুর মোহাম্মাদ শেখ সহ অন্যান্য শহীদ বীর মুক্তিযোদ্ধাদের সমাধীতে পুষ্পমাল্য অর্পন ও দোয়া কামনা করেন,সেখান থেকে তিনি ফিরে শার্শা উপজেলা পরিষদ প্রাঙ্গনে নির্মিত জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান এর ম্যুরালে ফুলেল শুভেচ্ছা জানান,সবশেষে যুবলীগ নেতা নাজমুল হাসান বেনাপোল পোর্ট থানাধীন কাগজ পুকুর শহীদ মিনারে যান এবং পুস্পমাল্য অর্পন শেষে যুবলীগের কেন্দ্রীয় নেতৃবৃন্দ সংগঠনের নেতাকর্মী ও সাধারণ মানুষের মাঝে মহামারি করোনা ‍সচেতনতায় মাস্ক বিতরণ করেন।

যুবলীগ নেতা নাজমুল হাসান সাংবাদিকদের এক প্রশ্নের জবাবে বলেন,পৌরসভা সহ স্থানীয় সরকার নির্বাচনে বাংলাদেশ আওয়ামীলীগ মনোনীত নৌকা প্রতীকের প্রার্থীর পক্ষে প্রচার -প্রচারনার জন্য খুলনা,বাগেরহাট,নড়াইল,যশোর ও সাতক্ষীরা জেলার টিম গঠন করে দেন আওয়ামী যুবলীগের চেয়ারম্যান শেখ ফজলে শামস্ পরশ ও সাধারন সম্পাদক আলহাজ্ব মাইনুল হোসেন খান নিখিল। তাদের নির্দেশক্রমে আমাদের  আজকের এই পদযাত্রা। তিনি উপস্থিত যুবলীগের নেতাকর্মীদের উদ্দেশ্যে মুজিব আদর্শে উজ্জীবিত হয়ে ঐক্যবদ্ধভাবে সংগঠন কে সুসংহত রাখার আহ্বান জানান।

যুবলীগ নেতা নাজমুল হাসানের সফর সঙ্গী হিসেবে ছিলেন যুবলীগ প্রেসিডিয়াম সদস্য মোঃ রফিকুল ইসলাম,উপ-কৃষি ও সমবায় বিষয়ক সহ:সম্পাদক বাবলুর রহমান বাবলু, ফারুক হোসেন উজ্জল(সাবেক শার্শা উপজেলার ছাত্রলীগ নেতা ও সমাজ কল্যাণ বিষয়ক সম্পাদক,মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড,যশোর জেলা শাখা),কবির হোসেন ভুঁইয়া,যুবলীগ নেতা,বেনাপোল পৌরসভা,হারুনুর রশিদ--যুগ্ম সাধারন সম্পাদক, বেনাপোল পৌর স্বেচ্ছাসেবকলীগ,আবুল হাশেম-সদস্য,বেনাপোল পৌর মুক্তিযোদ্ধা সংসদ সন্তান কমান্ড,সাহেব আলী-পৌর যুবলীগ নেতা,মহায়মিলন বাপ্পী,তারেক আজিজ রনি,জাহিদ হাসান প্রমুখ।

এবিএন/মোঃ আইয়ুব হোসেন পক্ষীজসিম/জুয়েল

এই বিভাগের আরো সংবাদ