পলাশবাড়ীতে ৬০টি গৃহহীন পরিবার পাচ্ছেন প্রধানমন্ত্রীর উপহার

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২১ জানুয়ারি ২০২১, ১৯:১৩

জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের স্বপ্ন ও প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতিশ্রুত দেশের সর্বস্তরের ভূমি ও গৃহহীন পরিবারকে সেমিপাকা ঘর দেয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন সরকার। এরই অংশ হিসেবে মুজিবশতবর্ষ উপলক্ষে গাইবান্ধার পলাশবাড়ীতে ৬০ ভূমি ও গৃহহীন পরিবার পেতে যাচ্ছেন এসব ঘর।

সংশ্লিষ্ট সূত্রে জানায়, মুজিববর্ষে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার প্রতিশ্রুত ভূমি ও গৃহহীন পরিবারের জন্য নবনির্মিত ঘরসমূহ তৈরী নিশ্চিত করতে গাইবান্ধা জেলা প্রশাসনের তত্ত্বাবধানে পলাশবাড়ী উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. কামরুজ্জামান নয়ন নিরলসভাবে কাজ করে যাচ্ছেন। জমি সংক্রান্ত জটিলতা নিরসনে সহায়তা করেছেন সদ্যবিদায়ী সহকারী কমিশনার (ভূমি) মোছা. মেরিনা আফরোজ, উপজেলা প্রকল্প বাস্তবায়ন কর্মকর্তা জিয়াউর রহমান সঙ্গীয় উপ-সহকারী প্রকৌশলী (ডিডিএম) মো. রাশেদুল আলমসহ সংশ্লিষ্টরা।  

চলমান সময় উদ্ধারকৃত খাসজমিতে প্রথম পর্যায়ে নির্মাণ করা হচ্ছে নির্বাচিত উপকারভোগী ভূমিহীন ৬০টি পরিবারের জন্য এসব নতুন ঘর। প্রকৃত ভূমিহীন যাছাই-বাছাই শেষে এ সংক্রান্ত ইতোমধ্যে একটি তালিকাও প্রধানমন্ত্রীর কার্যালয়ে প্রেরীত হয়েছে। উল্লেখিত ঘরের বিপরীতে নির্বাচিত ‘ক’ শ্রেণির ভূমিহীন পরিবারের মাঝে বন্দোবস্ত প্রদানের লক্ষে কবুলিয়ত দলিল সম্পাদন সম্পন্ন করা হয়েছে। উপজেলা প্রশাসন সুত্রে আরো জানায়, এসব ঘর নির্মাণে ১ লাখ ৭১ হাজার টাকা সরকারি বরাদ্দ দেয়া হয়েছে। প্রতিটি সেমিপাকা ঘরে থাকছে ২টি রুম ও ১টি বারান্দাসহ পৃথক বাথরুম।

উপজেলা নির্বাহী অফিসার মো. কামরুজ্জামান নয়ন বলেন, জাতির জনকের ইচ্ছার প্রতিফলন এবং অভিপ্রায় অনুযায়ী পলাশবাড়ীতে ৬০টি ঘরের চাবি আনুষ্ঠানিক ভাবে হস্তান্তর করতে পেরে আমরা সত্যিই সিক্ত। তালিকাভূক্ত অসহায় পরিবার গুলো অন্যের আশ্রিত কিংবা ভাসমান যেন-তেন ভাঙ্গাচোরা গৃহ থেকে প্রত্যাশানুযায়ী তাদের লালিত স্বপ্ন পূরনে একটি স্থায়ী ঠিকানায় উঠতে পারছেন বিষয়টি আমাদের জন্য একটি মানবিক খুশির বিষয়।

তিনি আরো বলেন, ইতোমধ্যে প্রথমধাপে ৬০টি ঘর নির্মাণ কাজ সম্পন্ন হয়েছে। এখন শুধু আনুষ্ঠানিক হস্তান্তরের অপেক্ষায়। আগামি ২৩ জানুয়ারী (শনিবার) অত্র প্রকল্পের আওতায় প্রথমধাপে উপজেলার বিভিন্ন ইউনিয়ন সমূহের সরকারি খাসজমিতে নির্মিত নতুন ঘরের চাবি প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনার উদ্ধোধনের মাধ্যমে আনুষ্ঠানিক ভাবে হস্তান্তর করা হবে।

এবিএন/আরিফ উদ্দিন/জসিম/জুয়েল

এই বিভাগের আরো সংবাদ