কিশোরগঞ্জের শোলাকিয়ায় দেশের সর্ববৃহৎ ঈদজামাত অনুষ্ঠিত

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২২ আগস্ট ২০১৮, ১২:৩৪

কিশোরগঞ্জ, ২২ আগস্ট, এবিনিউজ : কিশোরগঞ্জের ঐতিহাসিক শোলাকিয়ায় দেশের সর্ববৃহৎ ও ঈদজামাাতের অনুষ্ঠিত হয়েছে। এ বছরও  প্রায় লাখো মুসুল্লি এক কাতারে দাড়িয়ে ঈদের জামাতে অংশ নেন। ১৯১তম ঈদুল আজহার জামাতে ইমামতি করেন শহরের মারকায মসজিদের ইমাম হিফজুর রহমান খান।

আজ ২২ আগস্ট (বুধবার) সকাল ৯টায় জামাত অনুষ্ঠিত হয়। জামাত শেষে মোনাজাতে তিনি ১৯৭৫ সালের ১৫ আগস্টে নিহত জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের পরিবার ও জেলাখানায় নিহত জাতীয় চার নেতার রুহের শান্তি কামনা করেন এবং দেশের রাষ্ট্রপতি ও প্রধানমন্ত্রীর সুস্বাস্থ কামনা করেন।

দু’বছর আগে ঈদের দিন জঙ্গি হামলার প্রেক্ষাপটে এবার চার স্তরের নিরাপত্তামূলক ব্যবস্থা নিয়েছিল প্রশাসন। পুরোমাঠ ও আশপাশ এলাকার আকাশ থেকে ড্রোনের মাধ্যমে মুসুল্লিসহ সকলের গতিবিধি পর্যবেক্ষণ করা হয়। মুসুল্লিদের যাতায়াতের সুবিধার্থে ভোর থেকে ভৈরব ও ময়মনসিংহ থেকে বিশেষ ট্রেন চলাচল করে। এ বারের ঈদে লাখো মুসুল্লির সমাগম ঘটেছিল।

ভোর থেকে মাঠের বিভিন্ন দিক থেকে দলে দলে মুসুল্লিরা মাঠে আসতে শুরু করেন। আর্চওয়ে ও মেটাল ডিটেক্টরের মাধ্যমে প্রতিটি মুসুল্লিকে তল্লাশির পর মাঠে প্রবেশ করানো হয়। এসময় মুসুল্লিদের দীর্ঘ লাইন পড়ে যায়। প্রশাসনের নির্দেশনা অনুযায়ী কেবল জায়নামাজ ছাড়া মুসুল্লিদেরকে আর কিছু নিয়ে মাঠে প্রবেশের সুযোগ দেয়া হয়নি। ঈদুল ফিতরের জামাতে মুসুল্লিদের পরিমাণ কিছুটা বেশি হয়।

আর কোরবানি বাধ্যবাধকতা থাকায় ঈদুল আজহার জামাতে মুসুল্লিদের পরিমাণ কিছুটা কম হয়ে থাকে। কারণ ঈদুল আজহার জামাতে দূরদুরান্তের মুসুল্লিরা কম আসেন। তবুও এবারের ঈদ জামাতে লাখো মুসুল্লি একসাথে শোলাকিয়া মাঠে জামাত আদায় করেন।

২০১৬ সালের ৭ জুলাই ঈদের দিনে ভয়াবহ জঙ্গি হামলার প্রেক্ষাপটে নিরাপত্তার বিষয়ে কঠোর অবস্থান নিয়েছিল প্রশাসন। পর্যাপ্ত পুলিশ, এপিবিএন, র‌্যাব ছাড়াও মাঠে ছিল বিজিবির বিপুল পরিমাণ সদস্য। এছাড়া সাদা পোশাকে ব্যাপক সংখ্যক পুলিশ সদস্যও থাকবে। মাঠে আর্চওয়ে, ওয়াচ টাওয়ার, সিসি ক্যামেরারও ব্যবস্থা রাখা হয়েছিল।

সকাল থেকেই মাঠ ও আশপাশ এলাকার মুসুল্লি ও সকল কিছুর গতিবিধি পর্যেেবক্ষণের জন্যে আকাশে উড়ানো হয়েছিল ড্রোন। নিরাপত্তার চাদরে ঢেকে দেয়া হয়েছিল শোলাকিয়া মাঠ ও আশপাশ এলাকা।

এবিএন/শাফায়েতুল ইসলাম/জসিম/এমসি

এই বিভাগের আরো সংবাদ