দৌলতদিয়া ঘাটে পারাপারের অপেক্ষায় ছয় শতাধিক গাড়ি

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১৭ আগস্ট ২০১৮, ১১:২০ | আপডেট : ১৭ আগস্ট ২০১৮, ১১:২৭

ঢাকা, ১৭ আগস্ট, এবিনিউজ : দেশের গুরুত্বপূর্ণ নৌরুট দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া । গত কয়েক দিন ধরে পদ্মা নদীতে প্রবল স্রোত ও ফেরি সঙ্কটের কারণে  এই রুটে ফেরি চলাচল মারাত্মকভাবে ব্যাহত হচ্ছে। এতে রাজবাড়ীর দৌলতদিয়া প্রান্তে ফেরি পারের অপেক্ষায় রয়েছে শত শত যানবাহন, সৃষ্টি হয়েছে চার কিলোমিটার দীর্ঘ যানজটের । ফলে চরম দুর্ভোগে পড়েছেন চালক ও ঈদে ঘরমুখো যাত্রীরা।

আজ শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে দৌলতদিয়া ফেরি ঘাটের জিরো পয়েন্ট থেকে মহাসড়কের পদ্মার মোড় পর্যন্ত এ যানজট দেখা গেছে। এ সময় পাঁচ শতাধিক পণ্যবাহী ট্রাকসহ ছয় শতাধিক যানবাহনকে নদী পারের অপেক্ষায় সিরিয়ালে দাঁড়িয়ে থাকতে দেখা যায় ।

বিআইডব্লিউটিসি সূত্রে জানা গেছে, সিরিয়ালে রয়েছে শতধিক যাত্রবাহী বাস, ৬০ থেকে ৭০টি গরুবাহী ও পণ্যবাহী ট্রাক, কাভার্ডভ্যানসহ অন্যান্য যনবাহন।

আমানত শাহ ফেরির মাস্টার জাহাঙ্গীর আলম জানান, নদীতে বর্তমানে প্রবল স্রোত। তাই নদী পার হতে আগের চেয়ে সময় বেশি লাগছে।
পারের অপেক্ষায় থাকা যশোরগামী যাত্রী আব্দুল করিম বলেন, গতকাল বৃহস্পতিবার রাত ১০ টার সময় আমি সোহাগ পরিবহনে উঠেছি। আজ এখন পর্যন্ত ঘাট পার হতে পারলাম না। জানি না আজ সন্ধ্যার আগে যশোরে পৌঁছাতে পরবো কি না।  এখান থেকে নদীর পানি দেখা যাচ্ছে না। তবে শুনেছি নদীতে ব্যাপক  স্রোত থাকার কারণে ফেরি চলতে পারছে না। যার জন্য এ দীর্ঘ জট লেগেছে।

বিআইডব্লিউটিসি দৌলতদিয়া ঘাট সহকারী ব্যবস্থাপক (বাণিজ্য) মো. আবু আব্দুল্লাহ জানান, দৌলতদিয়া-পাটুরিয়া নৌরুটে বর্তমানে ছোট-বড় ১৯টি ফেরি চলাচল করছে। দৌলতদিয়া পাড়ে ৬টি ঘাটের মধ্যে ৫টি সচল রয়েছে। তবে নদীতে তীব্র স্রোত থাকার কারণে পারাপার হতে দ্বিগুন সময় লাগছে। যে কারণে ঘাটে ফেরি পারের অপেক্ষাও বাড়ছে।

এবিএন/জসিম/নির্ঝর
 

এই বিভাগের আরো সংবাদ