মামুনুলকে প্রতিহত করতে চট্টগ্রামে যুবলীগ-ছাত্রলীগের অবস্থান

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২৭ নভেম্বর ২০২০, ১৫:০২ | আপডেট : ২৭ নভেম্বর ২০২০, ১৫:১৫

হেফাজতে ইসলামের নেতা মাওলানা মামুনুল হককে চট্টগ্রামে আগমন প্রতিহত করতে চট্টগ্রাম শাহ আমানত বিমানবন্দর এলাকা এবং হাটহাজারীতে অবস্থান নিয়েছেন নগর যুবলীগ ও ছাত্রলীগের নেতাকর্মীরা। সেখানে বিক্ষোভ করছেন সংগঠন দু'টির কয়েকশ নেতাকর্মী।  

এর মধ্যে চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের উদ্যোগে হাটহাজারীতে সড়ক অবরোধ করা হয়েছে।

বঙ্গবন্ধুর ভাষ্কর্য নদীতে ফেলে দেওয়ার হুমকিসহ বিভিন্ন বিতর্কিত বক্তব্যের জন্য সমালোচিত হেফাজত নেতা মামুনুল ইসলামের চট্টগ্রামে আগমন প্রতিহত করার ঘোষণা দিয়ে ছাত্রলীগের বিভিন্ন পর্যায়ের নেতাকর্মীরা শুক্রবার (২৭ নভেম্বর) সকাল থেকেই চট্টগ্রাম শাহ আমানত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দরের বাইরে বিভিন্ন এলাকায় অবস্থান গ্রহণ করে প্রতিবাদ সমাবেশ করছে।

বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের ভাস্কর্য স্থাপনে বিরোধীতাকারী মামুনুল হককে চট্টগ্রামে প্রতিহতের ঘোষণা দেওয়া হয় বৃহস্পতিবার বিকালে চট্টগ্রাম প্রেস ক্লাব প্রাঙ্গনে ‘জঙ্গিবাদ বিরোধী ছাত্র ও যুব ঐক্য পরিষদ’ নামের সংগঠনের সমাবেশ থেকে। এরপর রাত থেকেই মামুনুল হকের উপস্থিতি নিয়ে নানা তথ্য ছড়াতে থাকে।

মামুনুল হক কোথায় জানতে চাইলে মাহফিল আয়োজনকারী আল আমিন সংস্থার সম্পাদক মোহাম্মদ আহসান উল্লাহ বলেন, গতকাল (বৃহস্পতিবার) রাতে উনার হাটহাজারী আসার কথা ছিল।  গতকাল সন্ধ্যার পর থেকে উনার সাথে আর যোগাযোগ হয়নি। উনার মোবাইল বন্ধ।

মামুনুল হক চট্টগ্রামে আসবেন কিনা বা এসে পৌঁছেছেন কিনা এমন প্রশ্নে আহসান উল্লাহ বলেন, যেহেতু যোগাযোগ হচ্ছে না তাই বলতে পারছি না তিনি কোথায়।

মামুনুল হকের ফোন বন্ধ বলে আহাসন উল্লাহ দাবি করলেও সকাল পৌনে ১১টা থেকে সাড়ে ১১টা পর্যন্ত কয়েকবার কল করে সেটি খোলা পাওয়া গেছে। কিন্তু বাংলাদেশ খেলাফত মজলিসের ভারপ্রাপ্ত সভাপতি মামুনুল ফোন ধরেননি। খেলাফত মজলিসের সাংগঠনিক সম্পাদক আজিজুর রহমানের সঙ্গেও যোগাযোগের চেষ্টা করে সাড়া মেলেনি।

হাটহাজারী উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা মো. রুহুল আমিনের কাছে জানতে চাইলে তিনিও মামুনুল হকের অবস্থান জানাতে পারেননি।

চট্টগ্রাম মহানগর ছাত্রলীগের সহ-সভাপতি বেসরকারি কারা পরিদর্শক ইয়াছিন আরাফাত কচি বলেন, যেখানেই মামুনুল হক সেখানই প্রতিরোধ করা হবে। জাতির জনক বঙ্গবন্ধুর ভাস্কর্য ভেঙে ফেলার হুমকি দাতা মামুনুল হককে কোনভাবেই চট্টগ্রামের মাটিতে পা রাখতে দেওয়া হবে না।

চট্টগ্রাম বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের সভাপতি রেজাউল হক রুবেল বলেন, মামুনুল হককে হাটহাজারীতে আগমন প্রতিহত করতে আমরা সড়কে অবস্থান নিয়েছি।

এদিকে, যেকোনো ধরনের অপ্রীতিকর ঘটনা এড়াতে সতর্ক অবস্থানে রয়েছে চট্টগ্রাম মহানগর পুলিশ এবং জেলা পুলিশ।

চট্টগ্রাম রেঞ্জের ডিআইজি আনোয়ার হোসেনের কাছে জানতে চাইলে তিনি বলেন, হাটহাজারীতে পরিস্থিতি শান্ত আছে। সেখানে আমাদের লোকজন আছে। আয়োজকদের সাথেও কথা হয়েছে। প্রশাসনের পক্ষ থেকে সবরকম প্রস্তুতি আছে। দু্ইদিন যাবত মাহফিল হচ্ছে। আশা করি পরিস্থিতি ভালো থাকবে। 

মামুনুল হক কোথায় বা তার আসার বিষয়ে কোনো তথ্য আছে কিনা জানতে চাইলে তিনি বলেন, সেটা আয়োজকদের জানার কথা। এ বিষয়ে আমাদের কাছে তথ্য নেই।

এবিএন/জনি/জসিম/জেডি

এই বিভাগের আরো সংবাদ