মামলাজট শেষ করতে বেশি কাজ করতে হবে : অ্যাটর্নি জেনারেল

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২১ নভেম্বর ২০২০, ১৬:৩৯

করোনাকালীন মামলাজট প্রসঙ্গে নবনিযুক্ত অ্যাটর্নি জেনারেল এ এম আমিন উদ্দিন বলেছেন, বাংলাদেশে অনেক দিন ধরে মামলাজট রয়েছে। করোনাকালীন সময়ে আদালত বন্ধ থাকায় নতুন মামলা হয়নি। তারপরও কিছুটা মামলাজট রয়েছে। মামলাজট শেষ করার জন্য আমাদের একটু বেশি কাজ করতে হবে। 

তিনি বলেন, সব আদালত যখন খুলে যাবে, তখন আমাদের ছুটি কমাতে হবে। ইতিমধ্যে আমাদের সেপ্টেম্বরের ছুটি বাতিল করা হয়েছে। এ কারণে আমাদের অনেকগুলো কার্যদিবস বেড়ে গিয়েছিলো। আগামী বছর করোনা থেকে রেহাই পেলে বার্ষিক ছুটি কমিয়ে কার্যদিবস বাড়িয়ে মামলাজট কমাতে পারবো।

শনিবার (২১ নভেম্বর) দুপুরে গোপালগঞ্জের টুঙ্গিপাড়ায় বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিতে শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে সাংবাদিকদের বিভিন্ন প্রশ্নের জবাবে তিনি এসব কথা বলেন।

এসময় অ্যাটর্নি জেনারেল বলেন, বঙ্গবন্ধুর পলাতক খুনিরা দুই একটি দেশে পালিয়ে রয়েছে। সেসব দেশের আইনগত প্রক্রিয়াতে সর্বোচ্চ চেষ্টা করা হচ্ছে। পলাতক খুনিদের ওইসব দেশের আইনি প্রক্রিয়ার মাধ্যমে আনতে হবে। সেখানে আইনি প্রক্রিয়া চলমান রয়েছে। আইনি প্রক্রিয়া শেষ হলে তাদের দেশে ফিরিয়ে আনা সম্ভব হবে।

পুরানো মামলা প্রসঙ্গে তিনি আরো বলেন, পুরনো অনেকগুলো মামলা রয়ে গেছে। অনেক পুরানো মামলা আমরা খুঁজে বের করা চেষ্টা করছি এবং অনেকগুলো বের করেছি। কিছু মামলা শুনানির অপেক্ষায় রয়েছে। সেগুলো শুনানির চেষ্টা করা হচ্ছে। কিছু মামলা কার্যতালিকায় আনা হয়েছে, কিছু মামলা শুনানি আরম্ভ হয়েছে। কিছুদিনের মধ্যে পুরনো মামলাগুলো শেষ করতে পারবো।

অ্যাটর্নি জেনারেল এ এম আমিন উদ্দিন আরো বলেন, জাতির জনকের সমাধিস্থলে প্রতিটি বাঙালির আসা উচিৎ। বঙ্গবন্ধু ছিলেন বলেই আজ আমরা স্বাধীন বাংলাদেশ পেয়েছি, মাথা উঁচু করে বেঁচে আছি। একজন বঙ্গবন্ধু থাকার কারণে আমার মতো একজন মানুষ অ্যাটর্নি জেনারেল হতে পেরেছি। আমাকে নিয়োজিত করা জন্য রাষ্ট্রপতি, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও আইনমন্ত্রীর কাছে আমি কৃতজ্ঞ।

এর আগে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমানের সমাধিসৌধ বেদিতে পুষ্পস্তবক অর্পণ করে গভীর শ্রদ্ধা জানান আমিন উদ্দিন। পরে বঙ্গবন্ধু ও পরিবারের নিহত সদস্যদের রুহের মাগফেরাত কামনা করে ফাতেহা পাঠ ও বিশেষ মোনাজাতে অংশ নেন। শ্রদ্ধা নিবেদন শেষে বঙ্গবন্ধু ভবনে রক্ষিত মন্তব্য বহিতে মন্তব্য লেখেন ও স্বাক্ষর করেন।

এসময় ডেপুটি অ্যাটর্নি জেনারেল সাইফুজ্জামান, ব্যারিস্টার মইনুল হোসেন, রেজাউল করিম, ব্যারিস্টার ওয়াইস আল হারুনী, একেএম আমিন উদ্দিন মানিক, কামরুল আহসান খান আসলাম, জেলা আওয়ামী লীগের সহ-সভাপতি সিকদার নূর মোহাম্মদ দুলু, সদর উপজেলা আওয়ামী রগের সাধারণ সম্পাদক রফিকুল ইসলাম মিটুসহ সুপ্রিম কোর্ট আইনজীবী সমিতির সদস্যগণ ও দলীয় নেতাকর্মীরা উপস্থিত ছিলেন।

এবিএন/জনি/জসিম/জেডি

এই বিভাগের আরো সংবাদ