শিক্ষার্থীদের অটো পাস-মূল্যায়ন নিয়ে যা বললেন গণশিক্ষা সচিব

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ০১ অক্টোবর ২০২০, ২১:০৮

প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো. আকরাম-আল-হোসেন
করোনাকালীন পরিস্থিতিতে দেশের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ। পরবর্তী পরিস্থিতি বিবেচনায় প্রাথমিক বিদ্যালয় খোলাসহ নানা বিষয়ে কথা বলেছেন প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব মো. আকরাম-আল-হোসেন।

বৃহস্পতিবার সচিবালয়ে নিজ দফতরে কয়েকটি বিষয়ে কথা বলেন তিনি।

মূল্যায়ন ও বার্ষিক পরীক্ষার সম্ভাবনা বিষয়ে সচিব বলেন, ১৬ মার্চ পর্যন্ত ৩০-৩৫ শতাংশ পাঠ পরিকল্পনা শেষ করতে পেরেছি আমরা। রেডিও, টেলিভিশন, সামাজিক মিডিয়ার মাধ্যমে পাঠদান কার্যক্রম চালাচ্ছি। আমাদের প্রধান লক্ষ্য হলো- প্রত্যেক শিক্ষার্থী মিনিমাম একটা লার্নিং কমপিটিন্সি যাতে অর্জন করতে পারে সেই ব্যাপারে আমরা কাজ করছি। পরীক্ষা বা মূল্যায়ন না।

সচিব মো. আকরাম-আল-হোসেন বলেন, বাচ্চারা সঠিকভাবে লার্নিং কমপিটিন্সি অর্জন করতে পেরেছে কিনা সেটি স্কুলের শিক্ষকই বলতে পারবে। আমরা সেটি নিয়ে কাজ করছি। পরবর্তী ক্লাসে শিক্ষার্থীদের তুলে দেয়ার জন্য প্রধান শিক্ষক ও সহকারী শিক্ষকরা একটি টুলস তৈরি করতে পারেন।

অটো পাসের বিষয়ে তিনি বলেন, ধীরে ধীরে স্পেস কমে যাচ্ছে। আর পরিস্থিতির উপর নির্ভর কি হতে পারে। আমরা নভেম্বর পর্যন্ত অপেক্ষা করি।

গণশিক্ষা সচিব বলেন, ১ নভেম্বর থেকে ১৯ ডিসেম্বর পর্যন্ত আমাদের একটা পাঠ পরিকল্পনা রয়েছে। যদি স্কুল খোলা সম্ভব হয় তবে পরিকল্পনা বাস্তবায়ন হবে। আর যদি সেটি না বাস্তবায়ন হয় তবে বুঝতেই পারছেন কী করা হবে। 

স্বাস্থ্যঝুঁকির ব্যাপারে প্রাথমিক ও গণশিক্ষা মন্ত্রণালয়ের সিনিয়র সচিব আকরাম-আল-হোসেন বলেন, করোনাকালে শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান বন্ধ। তাই বিদ্যালয়য়ে আসায় শিক্ষকদেরও স্বাস্থ্যঝুঁকি রয়েছে।

তিনি বলেন, স্কুল রি-ওপেনিং প্ল্যান-এর নির্দেশনা জারি করা হয়েছে। পরিস্থিতি অনুকূলে এলে কোন কোন বিষয়গুলো বিবেচনায় নিয়ে স্কুল খোলা হবে তার গাইডলাইন তৈরি করেছি। এ ক্ষেত্রে ডব্লিউএইচও, স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়, ইউনিসেফ, ইউনেস্কোর গাইডলাইন অনুসরণ করা হয়েছে। সেটা সব স্কুলে দিয়েছি। আমাদের সব শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান সেই রি-ওপেনিং প্ল্যান বিবেচনা করে একটি স্কুল রি-ওপেনিং প্ল্যান তৈরি করবে। 

 

এবিএন/ইমরান/জসিম/এসই

এই বিভাগের আরো সংবাদ