জবিতে মাসব্যাপী গবেষণা প্রশিক্ষণ কর্মসূচীর উদ্বোধন

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১৪ নভেম্বর ২০১৯, ১৩:১২

গতকাল (১৩ নভেম্বর, ২০১৯-বুধবার)  Center of Social Science Research Training (CSRT), জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয় এবং  পরিকল্পনা মন্ত্রণালয় এর যৌথ উদ্যোগে  `Advanced Training on Research Methodology ’ শীর্ষক প্রশিক্ষণ কোর্সের উদ্বোধনী অনুষ্ঠান সমাজকর্ম বিভাগ, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভাগীয় কক্ষে অনুষ্ঠিত হয়। এতে প্রধান অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমান।

রাষ্ট্রবিজ্ঞান বিভাগের চেয়ারম্যান ও CSRT এর সদস্য অধ্যাপক ড. এস. এম. আনোয়ারা বেগমের সভাপতিত্বে অনুষ্ঠানে বিশেষ অতিথি হিসেবে উপস্থিত ছিলেন গণপ্রজাতন্ত্রী বাংলদেশ সরকারের পরিকল্পনা মন্ত্রণালয়ের উপ-সচিব ড. উত্তম কুমার দাশ।
 সহকারী অধ্যাপক মামুনুর রশীদ শেখের সঞ্চালনায়,স্বাগত বক্তব্য প্রদান করেন CSRT, জগন্নাথ বিশ্ববিদ্যালয়ের পরিচালক অধ্যাপক ড. মোঃ আবুল হোসেন।

অধ্যাপক ড. আবুল হোসেন তার বক্তব্যে বলেন, কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষার মধ্যে পার্থক্য হল গবেষণা। তিনি বলেন, আগামী ১৫ তারিখ আমাদের ২য় ব্যাচের প্রশিক্ষণ কর্মসূচী শুরু হবে। গতবছর  আমাদের প্রথম ব্যাচে আমাদের ৪৬ জন প্রশিক্ষণার্থী ছিলেন এবং প্রথ্যেকেই আমাদের বিশ্ববিদ্যালয়ের শিক্ষক, পিএইচডি এবং এমফিল এর ছাত্র ছিলেন। ১ম ব্যাচের তুলনায় ২য় ব্যাচের গবেষণা প্রশিক্ষণ যাতে আরও বেশী  কার্যকর ও বাস্তবসম্মত হয়, সেই ভাবেই আমরা ২য় ব্যাচের প্রশিক্ষণ কর্মসূচী শুরু করব।

উপ-সচিব ড. উত্তম কুমার দাশ বলেন, মাননীয় প্রধানমন্ত্রী গবেষণা খাতে ব্যাপকভাবে জোর দিচ্ছে এবং আগের তুলনায় ফান্ড অনেক বাড়িয়ে দিয়েছেন।সামাজিক সমস্যা দূরীভূত করে,সমৃদ্ধ দেশ গঠনে সামাজিক গবেষণার বিকল্প নেই।

 অধ্যাপক ড. মীজানুর রহমান বলেন, বর্তমান বাংলাদেশের প্রেক্ষাপটে সামাজিক বিজ্ঞান গবেষণা গুরুত্ব অতুলনীয়। বাংলাদেশে নিরক্ষরতা, দারিদ্র্যতা, পুষ্টিহীনতা, ধর্মান্ধতা সহ নানা সমস্য প্রচলিত রয়েছে। আমাদের দেশের এসব সমস্যা আমাদের মত করে সমাধানের চেষ্টা করতে হবে। অন্যান্য উন্নত দেশের সাথে তুলনা করলে অথবা তাদের দেখানো পথ অবলম্বন করলে আমাদের সমস্যার সমাধান হবে না।

তিনি বলেন, কিছুদিন আগে নিউইয়র্কে  গিয়ে দেখলাম কোন পরিবার যদি তার বয়স্ক পিতামাতাকে লালনপালন করেন, তবে প্রতি ঘন্টায় সে ১৮ ডলার করে পাবে। সুতরাং তাদের সাথে ত আর আমাদের সমস্যা সমাধান পদ্ধতি মিলবে না। তাই আমাদের দেশের সীমিত সম্পদ ব্যাবহার করে, কিভাবে অগণিত সামাজিক সমস্যা দুর করা যাবে তার কার্যকরী সমাধান পাওয়ার জন্য গবেষণার বিকল্প আর কিছু হতে পারে না।

এসময় সমাজকর্ম বিভাগের চেয়ারম্যান অধ্যাপক ড.আবুল হোসেন, অধ্যাপক ড. মোস্তফা হাসান, অধ্যাপক ড. রেজাউল করিম, সহকারী অধ্যাপক সাজ্জাজবিতে মাসব্যাপী গবেষণা প্রশিক্ষণ কর্মসূচীর উদ্বোধনদ হোসেন,সহকারী অধ্যাপক জাফর ইকবাল, সহকারী অধ্যাপক মিফতাহুল বারী  সহ বিশ্ববিদ্যালয়ের বিভিন্ন অনুষদের ডিন, বিভাগীয় চেয়ারম্যানবৃন্দ, শিক্ষক-শিক্ষিকা এবং শিক্ষার্থীবৃন্দ উপস্থিত ছিলেন।


এবিএন/মোস্তাকিম ফারুকী/জসিম/তোহা

এই বিভাগের আরো সংবাদ