ঢাবিতে ৮১০ কোটি ৪২ লাখ টাকার বাজেট ঘোষণা

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২৬ জুন ২০১৯, ২২:০৯

২০১৯-২০ অর্থবছরে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের কার্যক্রম পরিচালনায় ৮১০ কোটি ৪২ লাখ টাকার বাজেট ঘোষণা করা হয়েছে। প্রায় তিন দশক পরে ছাত্র প্রতিনিধিদের উপস্থিতিতে পূর্ণাঙ্গ সিনেটে এই বাজেট ঘোষণা করা হয়।

এবছর বাজেটের আকার বাড়লেও কমেছে গবেষণা খাতে বরাদ্দ। গবেষণা খাতে এ বছর বরাদ্দ রাখা হয়েছে ১৬ কোটি ৮৬ লাখ টাকা। যা মোট বাজেটের ২.১ শতাংশ। গত বছরের তুলনায় এবছর বাজেটের আকার ৯.৩৫ শতাংশ বাড়লেও (৬৯ কোটি ২৯ লাখ) বাড়লেও গবেষণায় বরাদ্দ কমছে ২.৮৪ শতাংশ।

বিশ্ববিদ্যালয়ের ফাইন্যান্স কমিটি ও সিন্ডিকেটে অনুমোদনের পর বুধবার বিকালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের নবাব নওয়াব আলী চৌধুরী সিনেট ভবনে সিনেট অধিবেশনে এই বাজেট পাশ হয়।

বাজেট পেশ করেন বিশ্ববিদ্যালয়ের কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক কামাল উদ্দীন। এছাড়াও অধিবেশনে সিনেট চেয়ারম্যান ও উপাচার্য অধ্যাপক আখতারুজ্জামান, উপ-উপাচার্য (প্রশাসন) অধ্যাপক মুহাম্মদ সামাদ, ভারপ্রাপ্ত রেজিস্ট্রার এনামউজজামান ও সিনেট সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন।

এবছর বাজেটে বেতন ও ভাতাদি খাতে বরাদ্দ রাখা হয়েছে মোট বাজেটের ৫৫.৮২ শতাংশ, পণ্য ও সেবা বাবদ ব্যয় রাখা হয়েছে বাজেটের ২১.১৯ শতাংশ, বিশেষ অনুদান খাতে ১.৩১ শতাংশ, অন্যান্য অনুদান খাতে ২১.৬৮ শতাংশ বরাদ্দ রাখা হয়েছে।

অন্যান্য বছর গবেষণা খাতে আলাদা করে বরাদ্দ করা হলেও এবছর পণ্য ও সেবা খাতে এবং অন্যান্য অনুদান খাতের আওতায় এনে গবেষণার জন্য মোট ব্যয়ের ৫.০৪ শতাংশ বরাদ্দ দেখানো হয়েছে। তবে পণ্য ও সেবাখাত বাদ দিয়ে শুধু গবেষণার জন্য বরাদ্দ রাখা হয়েছে ১৬ কোটি ৮৬ লাখ টাকা। যা মোট বাজেটের ২.১ শতাংশ।

বাজেটে আয়ের উৎস হিসেবে বিশ্ববিদ্যালয় মঞ্জুরি কমিশনের (ইউজিসি) অনুদান ও নিজস্ব আয় ধরা হয়েছে।

এ বছর ৮১০ কোটি ৪২ লাখ টাকা বাজেটের মধ্যে ইউজিসি থেকে বরাদ্দ দেওয়া হয়েছে ৬৯৪ কোটি ৬৫ লাখ টাকা। আর বিশ্ববিদ্যালয়ের নিজস্ব আয় থেকে ৬৬ কোটি টাকা ধরা হয়েছে। বাজেট বাস্তবায়নে ঘাটতি ধরা হয়েছে ৪৫ কোটি ৭৭ লাখ টাকা।

এবিএন/মমিন/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ