ডাকসু নির্বাচনে কোটা আন্দোলনকারীদের প্যানেল ঘোষণা

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ২৫ ফেব্রুয়ারি ২০১৯, ২০:৩৫

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় কেন্দ্রীয় ছাত্র সংসদ (ডাকসু) নির্বাচনে পূর্ণাঙ্গ প্যানেল ঘোষণা করেছে কোটা সংস্কার আন্দোলনকারীদের সংগঠন বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ। আজ সোমবার সকালে বিশ্ববিদ্যালয়ের ডাকসু ভবনের সামনে সংবাদ সম্মেলনে এ প্যানেল ঘোষণা করা হয়।

প্যানেলে ভিপি (সহসভাপতি) হিসেবে সংগঠনের যুগ্ম আহ্বায়ক নুরুল হক নুর, জিএস (সাধারণ সম্পাদক) পদে মুহাম্মদ রাশেদ খাঁন ও সহসাধারণ সম্পাদক (এজিএস) পদে মো. ফারুক হোসেনের নাম ঘোষণা করা হয়েছে।
 
বাকি পদগুলোর মধ্যে রয়েছেন স্বাধীনতা সংগ্রাম ও মুক্তিযুদ্ধবিষয়ক সম্পাদক পদে নাজমুল হুদা, বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি সম্পাদক পদে মো. সোহরাব হোসেন, কমনরুম ও ক্যাফেটেরিয়া সম্পাদক পদে শেখ জামাল, আন্তর্জাতিক সম্পাদক পদে হাবিবুল্লাহ বেলালী, সাহিত্য সম্পাদক পদে আকরাম হোসেন, সাংস্কৃতিক সম্পাদক পদ নাহিদ ইসলাম, ক্রীড়া সম্পাদক পদে মামুনুর রশীদ (মামুন), ছাত্র পরিবহন সম্পাদক পদে রাজিবুল ইসলাম ও সমাজসেবা সম্পাদক পদে আখতার হোসেন।

ডাকসুর শীর্ষ তিন পদে কোটা আন্দোলনকারীদের তিন গুরুত্বপূর্ণ নেতা নির্বাচন করলেও ভোট করছেন না আহবায়ক হাসান আল মামুন।

ডাকসুতে মোট ২৫টি পদে নির্বাচন হবে। এর মধ্যে ১২টি সম্পাদকীয় পদ ও ১৩টি সদস্য পদ। সদস্য পদে বাংলাদেশ সাধারণ ছাত্র অধিকার সংরক্ষণ পরিষদ পাঁচজনের নাম ঘোষণা করেছে। বাকি আটজনের নাম পরে ঘোষণা করবেন বলে জানিয়েছে তারা।
 
এর আগে রোববার (২৪ ফেব্রুয়ারি) সহ-সভাপতি (ভিপি) পদে ছাত্রলীগের কেন্দ্রীয় সভাপতি রেজওয়ানুল হক চৌধুরী শোভন, সাধারণ সম্পাদক (জিএস) পদে কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক গোলাম রব্বানী এবং ঢাবি শাখা সাধারণ সম্পাদক সাদ্দাম হোসনকে ‍যুগ্ম-সাধারণ সম্পাদক (এজিএস) পদে প্রার্থীর করে প্যানেল ঘোষণা করেছে ছাত্রলীগ। এছাড়া ছাত্রমৈত্রী ও ছাত্রলীগের বিদ্রোহী একটি অংশ প্যানেল ঘোষণা করেছে। ছাত্রদল, প্রগতিশীল ছাত্রজোট, ছাত্র ইউনিয়ন তাদের প্যানেল ঘোষণার প্রস্তুতি চলছে। দুই-একদিনের মধ্যে তারা প্যানেল ঘোষণা দিতে পারে।

প্রসঙ্গত, প্রায় ২ যুগ পর গত ১১ ফেব্রুয়ারি ডাকসু নির্বাচনের তফসিল ঘোষণা করেন প্রধান রিটার্নিং কর্মকর্তা অধ্যাপক এস এম মাহফুজুর রহমান। ঘোষিত তফসিল অনুযায়ী- ডাকসু নির্বাচনের ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত হবে আগামী ১১ মার্চ। ডাকসুর ২৫টি পদে নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। মনোয়নপত্র বিতরণ ১৯ থেকে ২৫ ফেব্রুয়ারি, জমা দেয়ার শেষ তারিখ ২৬ ফেব্রুয়ারি, প্রত্যাহারের শেষ তারিখ ২ মার্চ। চূড়ান্ত প্রার্থী তালিকা প্রকাশ করা হবে ৩ মার্চ। ১১ মার্চ সকাল ৮টা থেকে দুপুর ২টা পর্যন্ত একটানা ভোটগ্রহণ অনুষ্ঠিত। নিজ নিজ হলে এই ভোটগ্রহণ চলবে।

এবিএন/মমিন/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ