অধ্যাপক ড. এ কে এম সিদ্দিকের মৃত্যুতে ঢাবি উপাচার্যের শোক

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ৩১ আগস্ট ২০১৮, ২১:০৭

ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন উপাচার্য ও বিশিষ্ট পদার্থ বিজ্ঞানী অধ্যাপক ড. এ কে এম সিদ্দিক (৯৬) -এর মৃত্যুতে বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান গভীর শোক প্রকাশ করেছেন।

এক শোকবাণীতে উপাচার্য অধ্যাপক ড. মো. আখতারুজ্জামান বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রাক্তন উপাচার্য ও বিশিষ্ট পদার্থ বিজ্ঞানী অধ্যাপক ডা. এ কে এম সিদ্দিক একজন নিবেদিত প্রাণ প্রশাসক, নিষ্ঠাবান শিক্ষক এবং গবেষক ছিলেন। তিনি দীর্ঘদিন শিক্ষকতা করেছেন বিশেষত পদার্থ বিজ্ঞানের গবেষণায় বিশেষ অবদান রেখেছেন। তিনি বিশ্ববিদ্যালয়ের একাডেমিক ও প্রশাসনিক ক্ষেত্রে যে অবদান রেখেছেন তা স্মরণীয় হয়ে থাকবে।

উপাচার্য মরহুমের রূহের মাগফেরাত কামনা করেন এবং তাঁর পরিবারের শোক-সন্তপ্ত সদস্যদের প্রতি গভীর সমবেদনা জ্ঞাপন করেন।

অধ্যাপক ড. এ কে এম সিদ্দিক মানিকগঞ্জে জন্মগ্রহণ করেন। তিনি ১৯৪২ সালে কলকাতার প্রেসিডেন্সি কলেজ থেকে পদার্থ বিজ্ঞানে বিএসসি অনার্স ডিগ্রী অর্জন করেন। দ্বিতীয় মহাযুদ্ধের কারণে ঢাকায় প্রত্যাবর্তন করে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগ থেকে ১৯৪৪ সালে মাস্টার্স ডিগ্রি লাভ করেন।

অধ্যাপক সিদ্দিক ১৯৫০ সালে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের পদার্থ বিজ্ঞান বিভাগে প্রভাষক হিসাবে যোগদান করেন। ১৯৫৬ সালে কলম্বো প্ল্যান বৃত্তি লাভ করে কানাডার ইউনিভার্সিটি অব সাসকাটচেওয়ান থেকে পি এইচ ডি ডিগ্রি অর্জন করেন। আন্তর্জাতিক আণবিক শক্তি সংস্থার ফেলোশিপ নিয়ে গবেষক হিসেবে তার খ্যাতি রয়েছে। তিনি ১৯৮১ সালে সুইডিশ নোবেল একাডেমিক কর্তৃক পদার্থ বিজ্ঞানে নোবেল পুরস্কার মনোনয়ন সংক্রান্ত কমিটির সদস্য ছিলেন।

অধ্যাপক ড. এ কে এম সিদ্দিক ২১ মার্চ ১৯৮৩ থেকে ১৬ আগস্ট ১৯৮৩ পর্যন্ত ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যের দায়িত্ব পালন করেন। এর আগে তিনি প্রো-ভাইস চ্যান্সেলর হিসেবেও দায়িত্ব পালন করেন।

উল্লেখ্য, অধ্যাপক সিদ্দিক আজ শুক্রবার বিকেল ৩ ঘটিকায় গুলশানে বার্ধক্যজনিত কারণে মৃত্যুবরণ করেছেন। মৃত্যুকালে তার বয়স হয়েছিল ৯৬ বৎসর। তিনি স্ত্রী, তিন ছেলে ও বহু গুণগ্রাহী রেখে গেছেন। আজ বাদ এশা গুলশান-১ এ তার প্রথম নামাযে জানাজা অনুষ্ঠিত হচ্ছে। আগামীকাল মানিকগঞ্জে দ্বিতীয় জানাজা শেষে তাঁর নিজ গ্রামে দাফন সম্পন্ন হবে।

এবিএন/রাজ্জাক/জসিম/এআর

এই বিভাগের আরো সংবাদ