তিতাস কর্তৃপক্ষের প্রতিবেদন প্রত্যাখান মসজিদ কমিটির

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১৮ সেপ্টেম্বর ২০২০, ১৬:৩২

বিস্ফোরণে প্রাণহানির ঘটনায় তিতাস কর্তৃপক্ষের প্রতিবেদনকে মিথ্যা বলে তা প্রত্যাখান করেছে নারায়ণগঞ্জের ফতুল্লার পশ্চিম তল্লা জামে মসজিদ কর্তৃপক্ষ। এলাকাটিতে গ্যাসের সংযোগ নেয়ার আগেই মসজিদের কাঠামোর স্থাপনা করা হয়েছে বলে তাদের দাবি।

নারায়ণগঞ্জের পশ্চিম তল্লা বাইতুস সালাত জামে মসজিদে দুর্ঘটনার পর অনুসন্ধান করতে মসজিদের পাশের রাস্তা খুঁড়ে গ্যাসের পাইপে লিকেজের সন্ধান পায় তিতাস গ্যাস কর্তৃপক্ষ।

গেল রমজান মাসে বিদ্যুৎ সরবরাহ নির্বিঘ্ন করতে প্রতিবারের মতো এবারও কর্তৃপক্ষের মৌখিক অনুমতিতে অবৈধ বিদ্যুৎ সংযোগ নেয়া হয়েছিলো বলে দাবি মসজিদ কর্তৃপক্ষের। আর এলাকায় গ্যাস সংযোগ যাওয়ার আগে মসজিদটির বর্তমান স্থাপনা তৈরির দাবি করে পুরনো সংযোগ না সরিয়ে নতুন সরবরাহ লাইন দেয়ার কারণেই দুর্ঘটনায় এতো প্রাণহানি ঘটেছে বলেও দাবি তাদের।

এলাকাবাসীর অভিযোগ, গ্যাসের লিকেজ সারাতে ঘুষের টাকা তুলতে মুসল্লিদের কাছ থেকে আগস্টের ২৮ তারিখে চাঁদা তোলা হয়েছিলো।

এদিকে, দুর্ঘটনায় এমন প্রাণহানি বন্ধে সুষ্ঠু তদন্ত করে ব্যবস্থা নেয়ার দাবি স্বজনহারাদের। অন্যদিকে, দুর্ঘটনায় নিহত ২৬ অসচ্ছল পরিবারকে খাদ্য সহায়তা দিয়েছে স্টুডেন্ট অব নোয়াখালী নামের একটি সংগঠন।

গত ৪ সেপ্টেম্বর এশার নামাজের সময় নারায়ণগঞ্জ সদর উপজেলার পশ্চিম তল্লা এলাকার বাইতুস সালাত জামে মসজিদে বিস্ফোরণের ঘটনা ঘটে। বিস্ফোরণে আহত হন অর্ধশতাধিক ব্যক্তি। তাদের মধ্যে দগ্ধ অবস্থায় ৩৭ জনকে শেখ হাসিনা জাতীয় বার্ন অ্যান্ড প্লাস্টিক সার্জারি ইনস্টিটিউটে ভর্তি করা হয়।

পরে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ৩১ জনের মৃত্যু হয়। দুর্ঘটনার পরদিন তিতাস গ্যাস ট্রান্সমিশন অ্যান্ড ডিস্ট্রিবিউশন কোম্পানি লিমিটেডের মহাব্যবস্থাপক আব্দুল ওহাবের নেতৃত্বে পাঁচ সদস্যের তদন্ত কমিটি গঠন করা হয়। এ ঘটনায় তিতাস ফতুল্লা অফিসের আট কর্মকর্তা-কর্মচারীকে সাময়িক বরখাস্ত করে।

এবিএন/মমিন/জসিম

এই বিভাগের আরো সংবাদ