বর্তমান সরকার লোকজ সংস্কৃতির বিকাশ ও উন্নয়নের লক্ষ্যে কাজ করছে : সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ০১ ডিসেম্বর ২০১৯, ২০:১৯

আজ রবিবার বিকালে থেকে ময়মনসিংহে শুরু হচ্ছে ৬ দিন ব্যাপী আঞ্চলিক লোক সংগীত উৎসব ও মেলা।  সাংস্কৃতিক মন্ত্রনালয়ের সহযোগিতায় ময়মনসিংহ জেলা প্রশাসন স্থানীয় জিমনিসিয়ামে এ উৎসবের আয়োজন করেছে। বিকাল তিনটায়  সংস্কৃতি প্রতিমন্ত্রী কে এম খালিদ এমপি প্রধান অতিথি হিসেবে  এ উৎসবের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন করেন । ময়মনসিংহের জেলা প্রশাসক মো. মিজানুর রহমান এতে সভাপতিত্ব করেন ।

 অন্যান্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন ময়মনসিংহ সবিভাগীয় কমিশনার খন্দকার মোস্তাফিজুর রহমান,ডিআইজি নিবাস চন্দ্র মাঝি, পুলিশ সুপার শাহ আবিদ হোসেন, জেলা আওয়ামী লীগের সভাপতি এডভোকেট জহিরুল হক খোকা,  জেলা আওয়ামীলীগের সাধারণ সম্পাদক এডভোকেট  মোয়াজ্জেম হোসেন বাবুল প্রমুখ। পরে মন্ত্রী মেলার বিভিন্ন স্টল পরিদর্শন করেন । এর আগে তিনি লোক সংগীত উৎসব উপলক্ষে স্মারক প্রকাশনা একতারা ও নির্বাচিত সৌরভের মোড়ক উন্মোচন করেন।

উদ্বোধনী বক্তব্যে মন্ত্রী বলেন, বর্তমান সরকার লোকজ সংস্কৃতির বিকাশ ও উন্নয়নে কাজ করে যাচ্ছে।আমাদের গ্রাম বাংলায় ছড়িয়ে চিটিয়ে থাকা লোক সংগীত বিশেষ করে জারি সারি পালা গানগুলো ফিরিয়ে আনতে  সংস্কৃতি মন্ত্রনালয় বিভিন্ন প্রকল্প গ্রহণ করেছে। তিনি আরও বলেন,  ময়মনসিংহের লোকজ সংস্কৃতি ঐতিহ্য ধরে রাখতে সরকার জয়নাল আবেদিন সংগ্রহশালায় একটি সাংস্কৃতি বলয় গড়ে তোলার লক্ষে কাজ শুরু করেছেন।   

৬ দিন ব্যাপী এ উৎসবে থাকছে লোকজ মেলা, আলোচনা সভা, বিতর্ক প্রতিযোগিতা এবং লোক সংগীত পরিবেশন। আঞ্চলিক লোক সংগীত উৎসব বাস্তবায়ন কমিটির আহবায়ক ও  অতিরিক্ত জেলা প্রশাসক   মো. জাহাঙ্গীর আলম জানান, প্রতিদিন এ মেলা সকাল ৯ টা থেকে রাত সাড়ে ৯ টা পর্য়ন্ত চলবে।

আজ উদ্বোধনী পর্বে মুক্তাগাছা ও ত্রিশালের ২ টি করে ৪টি দল অংশ  নেয়। এছাড়াও  বিশিষ্ট বাউল শিল্পী সুনীল কর্মকার ও তার দল বাউল গান পরিবেশন করেন।এ উৎসবে ময়মনসিংহ জেলার ৬৪ টি সাংস্কৃতিক দল লোক সংগীত পরিবেশন করবে । এ মধ্যে জেলার ১৩ টি উপজেলা থেকে ২ টি করে মোট ২৬ টি দল অংশ গ্রহণ করে লোকজ সংগীত পরিবেশন করবে বলে আয়োজকরা জানান।


এবিএন/জসিম/তোহা

এই বিভাগের আরো সংবাদ