কবিতা

বর্ষার দিনে

  অনলাইন ডেস্ক

প্রকাশ: ১৮ মে ২০১৮, ১৫:৫৮

বর্ষার দিনে
ইউসুফ আউলিয়া

সারাদিন কালো মেঘের ছুটাছুটির পালা,
লুকোচুরি খেলে গগন বুকে অগ্নি রবির থালা।
বৃক্ষ জুড়ে জাগে নব নব ফুলের মুকুল,
জলে ভরে ওঠে খাল বিল নদীর কূল।
নব ফুলের নব গন্ধে ভরা নিস্বর্গ বাতাস,
বজ্র মানিকে জ্বলে ওঠে ঊর্ধ্ব আকাশ।
সবুজ শ্যামলে ভরে ওঠে বাংলার মাঠ,
এলো বাতাসে দোল খায় চাষির ধান পাট।
গ্রাম্য দস্যি ছেলে মেয়ের খুশির দৌড়াদৌড়ি,
বর্ষা এসে থামিয়ে দিলো পাখির উড়াউড়ি।
বৃষ্টি পড়ে নীড় নড়ে দিশেহারা সব পাখি,
অলক্ষে চেয়ে থাকে পথ- নীরঝরা আঁখি।
উনুনে জ্বলেনা হাঁড়ি তন্দ্রাহারা কায় শ্রমিক,
অনাহারে মরে যারা দেশ গড়ার সৈনিক।
জনশূন্য দোকান পাট আর হাট বাজার,
গল্প শুনি দাদা দাদির মুখে কতো যে  রাজার।
কেউ আনে জাল ঘুনি কেউ আনে ছিপ,
ধরবে মাছে যতোই ঝরুক বৃষ্টি টিপটিপ।
একাকী হৃদয় জুড়ে প্রিয়জনের বিচরণ,
তার ভাবনায় বিভোর পুলকিত নয়ন।
হৃদয় আকুল পেতে স্বজনের কোমল ছোঁয়া,
কিসের অনুভূতি অনুভব করে - দিল খোয়া।
সন্ধ্যা এলে জমে ওঠে গ্রামের লোকগীতি,
তরুণ তরুণী খুঁজে ফিরে পিছনের স্মৃতি।
আজ শুয়ে থাকি নকশী কাঁথা গায়ে,
রিমঝিম বৃষ্টি দিনে পিঠা বানায় মায়ে।
বৃষ্টি দিনে ভালো লাগে খেতে চিড়া মুড়ি,
 আসর মাতিয়ে রাখে জোয়ান বুড়ো বুড়ি। 

(সংগ্রহীত)

এবিএন/নির্মল/জসিম/এনকে

এই বিভাগের আরো সংবাদ