বুধবার, ২১ ফেব্রুয়ারি ২০১৮, ৯ ফাল্গুন ১৪২৫
logo
feb18  

৯ম দিনে গ্রন্থমেলায় বই এসেছে ৩৪৪টি

৯ম দিনে গ্রন্থমেলায় বই এসেছে ৩৪৪টি

ঢাকা, ০৯ ফেব্রুয়ারি, এবিনিউজ : অমর একুশে গ্রন্থমেলার ৯ম দিন।  মেলা চলে সকাল ১১:০০টা থেকে রাত ৯:০০টা পর্যন্ত। মেলায় আজ নতুন বই এসেছে ৩৪৪টি। অমর একুশে উদ্যাপনের অংশ হিসেবে সকাল ৮:৩০টায় গ্রন্থমেলা প্রাঙ্গণে অনুষ্ঠিত হয় শিশু-কিশোর চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা। চিত্রাঙ্কন প্রতিযোগিতা উদ্বোধন করেন চিত্রশিল্পী অধ্যাপক নিসার হোসেন। প্রতিযোগিতায় ক-শাখায় ৩০০ জন, খ-শাখায় ২৭৫ জন এবং গ-শাখায় ১১২ জন। সর্বমোট ৬৮৭ জন প্রতিযোগী অংশগ্রহণ করেন। আগামী ২৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৮ প্রতিযোগিতার বিজয়ীদের মাঝে পুরস্কার প্রদান করা হবে।

বিকেল ৪:০০টা গ্রন্থমেলার মূলমঞ্চে অনুষ্ঠিত হয় রশীদ উদ্দিনউকিল মুন্সীবারী সিদ্দিকী শীর্ষক আলোচনা অনুষ্ঠান। প্রবন্ধ উপস্থাপন করেন সুমনকুমার দাশ। আলোচনায় অংশগ্রহণ করেন কামালউদ্দিন কবির এবং সাইমন জাকারিয়া। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করেন নূরুল হক।

প্রাবন্ধিক বলেন, বাংলার গ্রামীণ সমাজ-সংস্কৃতিতে, বিশেষত হাওরাঞ্চলে যেসব সাধক লোকায়ত ঐতিহ্যের উত্তরাধিকার হিসেবে আসীন, তাঁদের মধ্যে উকিল মুন্সী ও রশিদ উদ্দিন অন্যতম। তাঁদের রচিত গান নাগরিক সমাজে সম্প্রসারণ ঘটিয়েছেন যে কয়েকজন হাতে-গোনা ব্যক্তি, এদের মধ্যে শিল্পী বারী সিদ্দিকীর ভূমিকা সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ। এক অঞ্চলের এই তিন লোকমনীষার গান রচনা ও সুর সংযোজনা ক্ষুরধার এবং তৃণমূললগ্ন। লোকায়ত বাংলার এই তিন সাধক প্রকৃতই বাঙালির ঐতিহ্যিক মননবিশ্বের উজ্জ্বল প্রতিনিধি।

আলোচকবৃন্দ বলেন, কেবল নেত্রকোণার হাওর অঞ্চলের ভূ-প্রকৃতি ও জনজীবনই নয়, সেখানকার রাজনৈতিক, অর্থনৈতিক ও সামাজিক ইতিহাসের ধারক ও বাহক ছিলেন উকিল মুন্সী ও রশীদ উদ্দিনের মতো বাউল সাধকেরা।  রূপকতার আশ্রয়ে তাঁরা বলে গেছেন বিশ্বজগৎ ও জীবনের নানা নিগূঢ় ও অক্ষয় সত্য।  মানবজীবনের প্রেম, ভালোবাসা, বিচ্ছেদ-বেদনা ছাড়াও তাত্ত্বিক দিক থেকেও তাঁদের গান ছিল অত্যন্ত সমৃদ্ধ। মানবীয় চেতনা ও মানব-আবেগের মর্মস্পর্শী প্রকাশ তাঁদের গানকে শ্রোতাদের কাছে জনপ্রিয় করে তুলেছে।

সভাপতির বক্তব্যে নূরুল হক বলেন, এই তিন গুণী বাউল সাধক ও শিল্পীদের মতো বাংলার পথে-প্রান্তরে আরো অনেক বাউলরতœ লুকিয়ে আছেন। তাঁদের জীবনবোধ ও জীবনচেতনা অনুসন্ধানের মাধ্যমে আমাদের শিল্প, সাহিত্য ও জাতিসত্ত্বার উৎসের সন্ধান করতে হবে।

সন্ধ্যায় সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠানে ফারহানা চৌধুরী বেবীর পরিচালনায় নৃত্য সংগঠন ‘বাংলাদেশ একাডেমী অব ফাইন আর্টস লি. (বাফা)’-এর শিল্পীবৃন্দ। সংগীত পরিবেশন করেন শিল্পী মীনা বড়ুয়া, আবুবকর সিদ্দিক, মো. মুরাদ হোসেন।  যন্ত্রাণুষঙ্গে ছিলেন বেণু চক্রবর্তী (তবলা), মো. হোসেন আলী (বাঁশি) এবং ডালিম কুমার বড়–য়া (কী-বোর্ড)।

আগামীকালের অনুষ্ঠানসূচি :
আগামীকাল ১০ ফেব্রুয়ারি ২০১৮/২৮ মাঘ ১৪২৪ শনিবার। অমর একুশে গ্রন্থমেলার ১০ম দিন। মেলা চলবে সকাল ১১:০০টা থেকে রাত ৯:০০টা পর্যন্ত।
শিশুপ্রহর : আগামীকালও সকাল ১১:০০টা থেকে বেলা ১:০০টা পর্যন্ত মেলায় থাকবে শিশুপ্রহর।  
শিশু-কিশোর সংগীত প্রতিযোগিতা : অমর একুশে উদ্যাপনের অংশ হিসেবে সকাল ৯:৩০টায় গ্রন্থমেলার মূলমঞ্চে অনুষ্ঠিত হবে শিশু-কিশোর সংগীত প্রতিযোগিতা। অনুষ্ঠানে বিচারক হিসেবে উপস্থিত থাকবেন চন্দনা মজুমদার, ইয়াকুব আলী খান এবং সাগরিকা জামালী। অনুষ্ঠানে অতিথি হিসেবে থাকবেন প্রখ্যাত কণ্ঠশিল্পী সুবীর নন্দী। সভাপতিত্ব করবেন একাডেমির মহাপরিচালক অধ্যাপক শামসুজ্জামান খান।  
শিশু-কিশোর সাধারণ জ্ঞান ও উপস্থিত বক্তৃতা প্রতিযোগিতা : অমর একুশে উদ্যাপনের অংশ হিসেবে আগামীকাল সকাল ১০:০০টায় বাংলা একাডেমির আবদুল করিম সাহিত্যবিশারদ মিলনায়তনে শিশু-কিশোর সাধারণ জ্ঞান ও উপস্থিত বক্তৃতা প্রতিযোগিতার প্রাথমিক নির্বাচন অনুষ্ঠিত হবে। প্রতিযোগিতায় বিচারক হিসেবে উপস্থিত থাকবেন অধ্যাপক আন্জুমান আরা, অধ্যাপক ড. মোহাম্মদ সেলিম এবং জনাব মোবারক হোসেন।

বিকেল ৪:০০টা গ্রন্থমেলার মূলমঞ্চে অনুষ্ঠিত হবে রবি গুহ মুনীর চৌধুরী সরদার ফজলুল করিম শীর্ষক আলোচনা অনুষ্ঠান। প্রবন্ধ উপস্থাপন করবেন মফিদুল হক এবং এম এম আকাশ। আলোচনায় অংশগ্রহণ করবেন বেগম আকতার কামাল, অজয় দাশগুপ্ত, পিয়াস মজিদ ও অলকানন্দা গুহ। অনুষ্ঠানে সভাপতিত্ব করবেন অধ্যাপক সন্জীদা খাতুন। সন্ধ্যায় রয়েছে সাংস্কৃতিক অনুষ্ঠান।

এবিএন/রাজ্জাক/জসিম/এআর

প্রধান শিরোনাম

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত