শনিবার, ২১ এপ্রিল ২০১৮, ৮ বৈশাখ ১৪২৫
logo
 

গুগল ম্যাপে ট্রাফিক জ্যামের খবর জানতে করণীয়

গুগল ম্যাপে ট্রাফিক জ্যামের খবর জানতে করণীয়

ঢাকা, ১১ জানুয়ারি, এবিনিউজ : ঢাকাবাসীর জন্য নতুন বিস্ময় নিয়ে হাজির হয়েছে গুগল। গুগল ম্যাপ থেকেই জানা যাবে রাস্তার জ্যামের হালচাল। এবার ম্যাপ ও নেভিগেশনের সঙ্গে নতুন ফিচার হিসেবে যুক্ত হয়েছে রাস্তার জ্যামের খবর। এ ফিচার অনেক দেশে আগে থেকেই চালু থাকলেও ঢাকার জন্য চালু হয়েছে গত বছরের শেষ নাগাদ।

গুগল ম্যাপে ট্রাফিক জ্যামের খবর জানতে আপনার থাকতে হবে একটি স্মার্টফোন। খুব বেশি ভালো কনফিগারেশন ডিভাইস হতে হবে এমনটাও নয়, এক জিবি র‌্যামের স্মার্টফোন হলেই অনায়াসেই চলবে গুগল ম্যাপস অ্যাপটি। গুগল ম্যাপস ইন্সটল করতে প্রথমেই ইন্টারনেট সংযোগ চালু করে নিতে হবে। আপনি যদি ওয়াইফাই ব্যবহার করেন তাহলে সেটিংসে গিয়ে ওয়াইফাই সংযোগটি চালু করে নিতে হবে। মোবাইল ইন্টারনেট ব্যবহার করলে সেটিংসে ‘সেলুলার ডাটা’ অপশনে গিয়ে ‘অন’ বাটনে ক্লিক করতে হবে। যদি অ্যান্ড্রয়েড অপারেটিং সিস্টেম চালিত ডিভাইস ব্যবহার করেন তাহলে ফোনে থাকা গুগল স্টোরে গিয়ে ‘গুগল ম্যাপস’ লিখে সার্চ করে ডাউনলোড করে ইন্সটল করতে হবে। এরপর জিপিএস সুবিধাটি চালু করতে হবে। জিপিএস সুবিধা চালু করতে ফোনের সেটিংস অপশনে গিয়ে ‘লোকেশন’ অপশনটি ‘অন’ করে দিতে হবে। এরপর অ্যাপটি চালু করলেই ব্যবহারকারী কোথায় অবস্থান করছেন তা লোকেশনে দেখাবে। ব্যবহারকারীর আশাপাশে রাস্তাগুলোর ওপরে সবুজ, হলুদ, কমলা ও লাল রঙের কিছু রেখা দেখতে পাওয়া যাবে।

সবুজের অর্থ রাস্তা স্বাভাবিক, হলুদ মানে কিছু গাড়ি আছে যা যা ধীর গতিতে চলছে। কমলার মানে হালকা জ্যাম ও লাল মানে রাস্তায় গাড়ি ঠায় দাঁড়িয়ে রয়েছে। অপশনটি চালু থাকা অবস্থায় ডিভাইসের নোটিফিকেশনেও কিছুক্ষণ পরপর রাস্তার গাড়ি চলাচলের আপডেট দেখা যাবে। ব্যবহারকারীদের জ্যাম পেরিয়ে কোন স্থানে যেতে কতক্ষণ সময় লাগবে তাও জেনে নেয়া যাবে গুগল ম্যাপ থেকে। এর জন্য ম্যাপ অ্যাপটি উপরে সার্চ অপশনে যে স্থান এবং কোথায় যেতে চান তা নির্ধারণ করে দিতে হবে। তারপর ‘ডিরেকশনস’ অপশনে ক্লিক করলে স্থানটির দূরত্ব কত কিলোমিটার এবং যেতে কত সময় লাগবে তা দেখা যাবে।

গুগল ম্যাপের আরো কিছু সুবিধা– গুগল ম্যাপের সাহায্য নতুন কোন জায়গায় গেলে তা সহজেই খুঁজে পাওয়া যাবে। অ্যাপটির সাহায্যে ব্যবহারকারীদের লোকেশন অনুযায়ী হোটেল, ক্যাফে, গ্যাস স্টেশন, এটিএম বুথ, ফার্মেসি এবং শপিং সেন্টারের তথ্য মিলবে। এছাড়া স্থানগুলোর ছবি পাওয়া যাবে। গুগল ম্যাপের চাইলে ব্যবহারকারীরা অফলাইনে লোকেশন সংরক্ষণ করে রাখতে পারবেন। ফলে ইন্টারনেট সংযোগ ছাড়াই স্থানগুলো দেখে নেয়া যাবে। চাইলে ব্যবহারকারীরা তাদের পছন্দের স্থানগুলো গুগল ম্যাপ সংরক্ষণ করে রাখতে পারবেন। পরবর্তীতে লোকেশন ভুলে গেলে তা সহজেই দেখে নেয়া সম্ভব হবে। ফোনে টাইপ করতে ঝামেলা মনে হলে ভয়েস সার্চ করেই গুগল ম্যাপস অ্যাপে যে কোন স্থানের খোঁজে পাওয়া যাবে।

এবিএন/ফরিদুজ্জামান/জসিম/এফডি

প্রধান শিরোনাম

  • সর্বশেষ খবর
  • সর্বাধিক পঠিত